Dhaka ০২:০২ অপরাহ্ন, শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পাইকগাছায় হাতকড়াসহ আসামি পালানোর ঘটনায় এএসআইকে প্রত্যাহার

  • Reporter Name
  • Update Time : ০১:৪১:৫২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ জুলাই ২০২৩
  • 11

ইকবাল হোসেন, পাইকগাছা থেকে : খুলনার পাইকগাছায় হাতকড়াসহ আসামি পালানোর ঘটনায় পুলিশের সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) নাসির উদ্দীনকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। আজ ১৮ জুলাই মঙ্গলবার সকালে নাসির উদ্দীনকে প্রত্যাহার করে খুলনা পুলিশ লাইনসে নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন পাইকগাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রফিকুল ইসলাম।

থানার পুলিশ বলছে, গত ১৬ জুলাই রোববার সন্ধ্যা ৬টার দিকে ডাকাতির প্রস্তুতি মামলায় উপজেলার বিরাশী গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে মনিরুল ইসলামকে (৪০) সন্দেহভাজন হিসেবে আটক করেন এএসআই নাসির উদ্দীন। তাঁকে হাতকড়া পরিয়ে পুলিশ ভ্যানে করে থানায় নিয়ে আসার সময় পৌর সদরের পোস্ট অফিস মোড়ে থেকে হাতকড়াসহ পালিয়ে যান মনিরুল। পরে ওই রাতেই সাড়ে ১০টার দিকে পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ড বাতিখালীর ওয়াপদা রাস্তার ওপর থেকে স্থানীয়দের সহযোগিতায় পুনরায় তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়।

এ বিষয়ে পাইকগাছা থানার ওসি মো. রফিকুল ইসলাম দৈনিক সূর্যোদয় প্রতিনিধিকে বলেন, ডাকাতি মামলার আসামি মনিরুল হাতকড়াসহ পালিয়ে যান। পরে ওই আসামিকে অন্য এক স্থান থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। তবে এ ঘটনায় খুলনা জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মাদ সাইদুর রহমানের এক বার্তায় এএসআই নাসির উদ্দীনকে প্রত্যাহার করে পুলিশ লাইনসে নেওয়া হয়েছে।

Tag :
সর্বাধিক পঠিত

পাইকগাছায় হাতকড়াসহ আসামি পালানোর ঘটনায় এএসআইকে প্রত্যাহার

Update Time : ০১:৪১:৫২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ জুলাই ২০২৩

ইকবাল হোসেন, পাইকগাছা থেকে : খুলনার পাইকগাছায় হাতকড়াসহ আসামি পালানোর ঘটনায় পুলিশের সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) নাসির উদ্দীনকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। আজ ১৮ জুলাই মঙ্গলবার সকালে নাসির উদ্দীনকে প্রত্যাহার করে খুলনা পুলিশ লাইনসে নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন পাইকগাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রফিকুল ইসলাম।

থানার পুলিশ বলছে, গত ১৬ জুলাই রোববার সন্ধ্যা ৬টার দিকে ডাকাতির প্রস্তুতি মামলায় উপজেলার বিরাশী গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে মনিরুল ইসলামকে (৪০) সন্দেহভাজন হিসেবে আটক করেন এএসআই নাসির উদ্দীন। তাঁকে হাতকড়া পরিয়ে পুলিশ ভ্যানে করে থানায় নিয়ে আসার সময় পৌর সদরের পোস্ট অফিস মোড়ে থেকে হাতকড়াসহ পালিয়ে যান মনিরুল। পরে ওই রাতেই সাড়ে ১০টার দিকে পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ড বাতিখালীর ওয়াপদা রাস্তার ওপর থেকে স্থানীয়দের সহযোগিতায় পুনরায় তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়।

এ বিষয়ে পাইকগাছা থানার ওসি মো. রফিকুল ইসলাম দৈনিক সূর্যোদয় প্রতিনিধিকে বলেন, ডাকাতি মামলার আসামি মনিরুল হাতকড়াসহ পালিয়ে যান। পরে ওই আসামিকে অন্য এক স্থান থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। তবে এ ঘটনায় খুলনা জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মাদ সাইদুর রহমানের এক বার্তায় এএসআই নাসির উদ্দীনকে প্রত্যাহার করে পুলিশ লাইনসে নেওয়া হয়েছে।