Dhaka ১২:৫৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ৩০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পাবনায় পুলিশের অভিযানে, বিএনপির অর্ধশত নেতাকর্মী গ্রেপ্তার

  • Reporter Name
  • Update Time : ১২:৩৭:০৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৬ অক্টোবর ২০২৩
  • 21

পাবনা প্রতিনিধি: পাবনায় রাতভর অভিযান চালিয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী বিএনপির অর্ধশত নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে বলে অভিযোগ করেছে বিএনপি। তবে পুলিশ বলছে, গণগ্রেপ্তার নয়, যাদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা রয়েছে বা সুনির্দিষ্ট অভিযোগ রয়েছে তাদেরকেই গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

২৫ অক্টোবর বুধবার রাত থেকে ২৬ অক্টোবর বৃহস্পতিবার ভোর পর্যন্ত পাবনা জেলার সকল থানা এলাকায় এই অভিযান চালানো হয়। পাবনার পুলিশ সুপার আকবর আলী মুন্সী গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করলেও তারা নির্দিষ্ট সংখ্যা বলতে পারেননি।

বিএনপির দাবি, পাবনা জেলা বিএনপির সাবেক সহ-সভাপতি ও পাবনা পৌর বিএনপির সাবেক সভাপতি আলহাজ তৌফিক হাবিব, আটঘরিয়া উপজেলা মৎস্যজীবী দলের সভাপতি ফরিদ, আতাইকুলা ইউনিয়ন ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি শান্ত, বেড়া পৌর ছাত্রদলের আহ্বায়ক মো. ফারুক আহমেদ জনি, হাটুরিয়া নাকালিয়া ইউনিয়ন বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাইদ, নতুন ভারেঙ্গা ইউনিয়ন বিএনপির সাবেক সভাপতি মো. দুলাল, মাধপুরের সোলাইমানসহ অর্ধশতাধিক নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

পাবনা জেলা বিএনপির সদস্য সচিব অ্যাডভোকেট মাকসুদুর রহমান মাসুদ খন্দকার বলেন, অনেক নেতাকর্মীদের নামে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা নেই, অনেকেই জামিনে রয়েছে, তারপরও তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হচ্ছে। ঢাকায় আমাদের মহাসমাবেশকে বাধাগ্রস্ত করতেই এই গণগ্রেপ্তার অভিযান চলছে। তবে পাবনার পুলিশ সুপার আকবর আলী মুন্সী বলেন, গণগ্রেপ্তার করলে তো অনেক গ্রেপ্তার হত। যাদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা, আগে মামলা কিংবা সুনির্দিষ্ট অভিযোগ রয়েছে তাদেরকেই কেবল গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

Tag :
সর্বাধিক পঠিত

https://dainiksurjodoy.com/wp-content/uploads/2023/12/Green-White-Modern-Pastel-Travel-Agency-Discount-Video5-2.gif

রাজধানীর মতিঝিলে লক্ষ্মী নারায়ণ জিউ মন্দিরের ২০০ কোটি টাকার সম্পত্তি উদ্ধার

পাবনায় পুলিশের অভিযানে, বিএনপির অর্ধশত নেতাকর্মী গ্রেপ্তার

Update Time : ১২:৩৭:০৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৬ অক্টোবর ২০২৩

পাবনা প্রতিনিধি: পাবনায় রাতভর অভিযান চালিয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী বিএনপির অর্ধশত নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে বলে অভিযোগ করেছে বিএনপি। তবে পুলিশ বলছে, গণগ্রেপ্তার নয়, যাদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা রয়েছে বা সুনির্দিষ্ট অভিযোগ রয়েছে তাদেরকেই গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

২৫ অক্টোবর বুধবার রাত থেকে ২৬ অক্টোবর বৃহস্পতিবার ভোর পর্যন্ত পাবনা জেলার সকল থানা এলাকায় এই অভিযান চালানো হয়। পাবনার পুলিশ সুপার আকবর আলী মুন্সী গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করলেও তারা নির্দিষ্ট সংখ্যা বলতে পারেননি।

বিএনপির দাবি, পাবনা জেলা বিএনপির সাবেক সহ-সভাপতি ও পাবনা পৌর বিএনপির সাবেক সভাপতি আলহাজ তৌফিক হাবিব, আটঘরিয়া উপজেলা মৎস্যজীবী দলের সভাপতি ফরিদ, আতাইকুলা ইউনিয়ন ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি শান্ত, বেড়া পৌর ছাত্রদলের আহ্বায়ক মো. ফারুক আহমেদ জনি, হাটুরিয়া নাকালিয়া ইউনিয়ন বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাইদ, নতুন ভারেঙ্গা ইউনিয়ন বিএনপির সাবেক সভাপতি মো. দুলাল, মাধপুরের সোলাইমানসহ অর্ধশতাধিক নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

পাবনা জেলা বিএনপির সদস্য সচিব অ্যাডভোকেট মাকসুদুর রহমান মাসুদ খন্দকার বলেন, অনেক নেতাকর্মীদের নামে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা নেই, অনেকেই জামিনে রয়েছে, তারপরও তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হচ্ছে। ঢাকায় আমাদের মহাসমাবেশকে বাধাগ্রস্ত করতেই এই গণগ্রেপ্তার অভিযান চলছে। তবে পাবনার পুলিশ সুপার আকবর আলী মুন্সী বলেন, গণগ্রেপ্তার করলে তো অনেক গ্রেপ্তার হত। যাদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা, আগে মামলা কিংবা সুনির্দিষ্ট অভিযোগ রয়েছে তাদেরকেই কেবল গ্রেপ্তার করা হয়েছে।