Dhaka ০১:৪৯ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সিরাজগঞ্জের কাজিপুর সলিড স্পার ধসে গেল

  • Reporter Name
  • Update Time : ১২:৪৬:২৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৭ জুলাই ২০২৩
  • 13

সূর্যোদয় প্রতিনিধি : যমুনায় পানি বাড়তে থাকায় ঘূর্ণাবর্ত সৃষ্টি হয়ে ধসে গেছে সিরাজগঞ্জের কাজিপুর সলিড স্পারের অন্তত ৩০ মিটার এলাকা।

৭ জুলাই শুক্রবার ভোরে কাজিপুর যমুনা নদীর মেঘাই ১ নম্বর সলিড স্পার এলাকায় এ ধস দেখা দেয়। এ বাঁধটি পুরোপুরি ধসে গেলে উপজেলার বিভিন্ন সরকারি প্রতিষ্ঠান হুমকির মুখে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে বলে স্থানীয়রা জানান। কাজিপুর সদর ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান বিপ্লব জানান, যমুনা নদীতে গত কয়েকদিন ধরে পানি বাড়ছে। পানি বাড়ার ফলে ৭ জুলাই শুক্রবার ভোর ৫টা থেকে মেঘাই ১ নম্বর সলিড স্পার এলাকায় ঘূর্ণাবর্ত সৃষ্টি হয়। এতে মুহূর্তেই স্পারের ৩০/৪০ মিটার নদীগর্ভে চলে যায়। তিনি জানান, এ স্পারটি সম্পূর্ণ ক্ষতিগ্রস্ত হলে কাজিপুর থানা, খাদ্য গুদাম, রেজিস্ট্রি অফিস, কাজিপুর সদর ইউনিয়ন পরিষদ ভবনসহ বিভিন্ন সরকারি প্রতিষ্ঠান হুমকির মুখে পড়বে। কাজিপুর উপজেলার ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) কাজী অনিক ইসলাম জানান, ইউপি চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান বিপ্লব আমাকে স্পার ধসে যাওয়ার বিষয়টি জানিয়েছেন। তাৎক্ষণিকভাবে আমি পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) কর্মকর্তাদের জানিয়েছি। পাউবোর লোকজন ঘটনাস্থলে পৌঁছেছেন। পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. মাহবুবুর রহমান জানান, খবর পেয়ে আমরা দ্রæত ঘটনাস্থলে চলে এসেছি। সলিড স্পারের অন্তত ৩০ মিটার এলাকা ধসে গেছে। আপাতত জিও ব্যাগ ফেলে ধস ঠেকানোর চেষ্টা চলছে।

১৯৯৭ সালে কাজিপুর উপজেলা রক্ষায় তৎকালীন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী প্রয়াত মোহাম্মদ নাসিমের প্রচেষ্টায় মেঘাই খেয়াঘাট এলাকায় ৩০০ মিটার স্পার নির্মাণ করা হয়।

২০১২ ও ২০১৩ সালে স্পারটির মূল অংশের ১৫০ মিটার ধসে যায়। পরে স্পারের মাটির অংশটুকু রক্ষায় সিসি বøক দিয়ে প্রটেকশন দেওয়া হয়। শুক্রবার সেই অংশের ৩০ মিটার নদীগর্ভে বিলীন হলো।

Tag :

সিরাজগঞ্জের কাজিপুর সলিড স্পার ধসে গেল

Update Time : ১২:৪৬:২৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৭ জুলাই ২০২৩

সূর্যোদয় প্রতিনিধি : যমুনায় পানি বাড়তে থাকায় ঘূর্ণাবর্ত সৃষ্টি হয়ে ধসে গেছে সিরাজগঞ্জের কাজিপুর সলিড স্পারের অন্তত ৩০ মিটার এলাকা।

৭ জুলাই শুক্রবার ভোরে কাজিপুর যমুনা নদীর মেঘাই ১ নম্বর সলিড স্পার এলাকায় এ ধস দেখা দেয়। এ বাঁধটি পুরোপুরি ধসে গেলে উপজেলার বিভিন্ন সরকারি প্রতিষ্ঠান হুমকির মুখে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে বলে স্থানীয়রা জানান। কাজিপুর সদর ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান বিপ্লব জানান, যমুনা নদীতে গত কয়েকদিন ধরে পানি বাড়ছে। পানি বাড়ার ফলে ৭ জুলাই শুক্রবার ভোর ৫টা থেকে মেঘাই ১ নম্বর সলিড স্পার এলাকায় ঘূর্ণাবর্ত সৃষ্টি হয়। এতে মুহূর্তেই স্পারের ৩০/৪০ মিটার নদীগর্ভে চলে যায়। তিনি জানান, এ স্পারটি সম্পূর্ণ ক্ষতিগ্রস্ত হলে কাজিপুর থানা, খাদ্য গুদাম, রেজিস্ট্রি অফিস, কাজিপুর সদর ইউনিয়ন পরিষদ ভবনসহ বিভিন্ন সরকারি প্রতিষ্ঠান হুমকির মুখে পড়বে। কাজিপুর উপজেলার ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) কাজী অনিক ইসলাম জানান, ইউপি চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান বিপ্লব আমাকে স্পার ধসে যাওয়ার বিষয়টি জানিয়েছেন। তাৎক্ষণিকভাবে আমি পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) কর্মকর্তাদের জানিয়েছি। পাউবোর লোকজন ঘটনাস্থলে পৌঁছেছেন। পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. মাহবুবুর রহমান জানান, খবর পেয়ে আমরা দ্রæত ঘটনাস্থলে চলে এসেছি। সলিড স্পারের অন্তত ৩০ মিটার এলাকা ধসে গেছে। আপাতত জিও ব্যাগ ফেলে ধস ঠেকানোর চেষ্টা চলছে।

১৯৯৭ সালে কাজিপুর উপজেলা রক্ষায় তৎকালীন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী প্রয়াত মোহাম্মদ নাসিমের প্রচেষ্টায় মেঘাই খেয়াঘাট এলাকায় ৩০০ মিটার স্পার নির্মাণ করা হয়।

২০১২ ও ২০১৩ সালে স্পারটির মূল অংশের ১৫০ মিটার ধসে যায়। পরে স্পারের মাটির অংশটুকু রক্ষায় সিসি বøক দিয়ে প্রটেকশন দেওয়া হয়। শুক্রবার সেই অংশের ৩০ মিটার নদীগর্ভে বিলীন হলো।