Dhaka ০১:৪৫ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের ১৮৮৭ কোটি ২৮ লাখ টাকার বাজেট

  • Reporter Name
  • Update Time : ০১:০৪:১৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ২১ জুন ২০২৩
  • 7

চট্টগ্রাম ব্যুরো : ২০২৩-২৪ অর্থবছরের জন্য ১৮৮৭ কোটি ২৮ লাখ টাকার বাজেট ঘোষণা করেছেন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র রেজাউল করিম চৌধুরী।
২১ জুন বুধবার দুপুরে আন্দরকিল্লার কেবি আবদুচ ছত্তার মিলনায়তনে চসিকের বাজেট অধিবেশনে এ ঘোষণা দেন তিনি।

২০২২-২৩ অর্থবছরে চসিকের ১১৭৬ কোটি ২৮ লাখ ১০ হাজার টাকার সংশোধিত বাজেটও উপস্থাপন করেন মেয়র।

বাজেট অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন চসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মুহম্মদ তৌহিদুল ইসলাম। এসময় মেয়র বলেন, আমি দায়িত্ব নেওয়ার পর ঠিকাদার ও অন্যান্য বকেয়া থোক বরাদ্দ খাতে ৪৫ কোটি ৩৪ লাখ টাকা সহ প্রায় ২০০ কোটি টাকা পরিশোধ করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, ৭০ কোটি ২৭ লাখ টাকা আয়কর ও ৮৫ কোটি ৫০ লাখ টাকা মূল্য সংযোজন কর সরকারি কোষাগারে জমা দেওয়া হয়েছে। চসিকের ২ লাখ ৬ হাজার ১৪৯টি হোল্ডিং রয়েছে। বহদ্দারহাট বারইপাড়া খালের ৪ হাজার ৫০০ ফুট প্রতিরোধ দেয়াল নির্মাণ, ২৫০০ ফুট ড্রেন নির্মাণকাজ শেষ হয়েছে। সরকারের ভিশন হচ্ছে ২০৪১ সালের মধ্যে স্মার্ট বাংলাদেশ। এই রূপকল্পের ভিত্তি হচ্ছে স্মার্ট নাগরিক, স্মার্ট সমাজ, স্মার্ট অর্থনীতি ও স্মার্ট সরকার। সেই লক্ষ্যে এগিয়ে যাচ্ছি আমরা। চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনে বেশিরভাগ কার্যক্রম এখন অনলাইন ভিত্তিক করা হচ্ছে। পর্যায়ক্রমে করপোরেশনের প্রশাসনিক সব কাজ ইলেকট্রনিক সিস্টেমের আওতায় আনা হবে।

Tag :
সর্বাধিক পঠিত

https://dainiksurjodoy.com/wp-content/uploads/2023/12/Green-White-Modern-Pastel-Travel-Agency-Discount-Video5-2.gif

নিউইয়র্কে সেইভ দ্য পিপল’র উদ্যোগে হালাল খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের ১৮৮৭ কোটি ২৮ লাখ টাকার বাজেট

Update Time : ০১:০৪:১৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ২১ জুন ২০২৩

চট্টগ্রাম ব্যুরো : ২০২৩-২৪ অর্থবছরের জন্য ১৮৮৭ কোটি ২৮ লাখ টাকার বাজেট ঘোষণা করেছেন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র রেজাউল করিম চৌধুরী।
২১ জুন বুধবার দুপুরে আন্দরকিল্লার কেবি আবদুচ ছত্তার মিলনায়তনে চসিকের বাজেট অধিবেশনে এ ঘোষণা দেন তিনি।

২০২২-২৩ অর্থবছরে চসিকের ১১৭৬ কোটি ২৮ লাখ ১০ হাজার টাকার সংশোধিত বাজেটও উপস্থাপন করেন মেয়র।

বাজেট অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন চসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মুহম্মদ তৌহিদুল ইসলাম। এসময় মেয়র বলেন, আমি দায়িত্ব নেওয়ার পর ঠিকাদার ও অন্যান্য বকেয়া থোক বরাদ্দ খাতে ৪৫ কোটি ৩৪ লাখ টাকা সহ প্রায় ২০০ কোটি টাকা পরিশোধ করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, ৭০ কোটি ২৭ লাখ টাকা আয়কর ও ৮৫ কোটি ৫০ লাখ টাকা মূল্য সংযোজন কর সরকারি কোষাগারে জমা দেওয়া হয়েছে। চসিকের ২ লাখ ৬ হাজার ১৪৯টি হোল্ডিং রয়েছে। বহদ্দারহাট বারইপাড়া খালের ৪ হাজার ৫০০ ফুট প্রতিরোধ দেয়াল নির্মাণ, ২৫০০ ফুট ড্রেন নির্মাণকাজ শেষ হয়েছে। সরকারের ভিশন হচ্ছে ২০৪১ সালের মধ্যে স্মার্ট বাংলাদেশ। এই রূপকল্পের ভিত্তি হচ্ছে স্মার্ট নাগরিক, স্মার্ট সমাজ, স্মার্ট অর্থনীতি ও স্মার্ট সরকার। সেই লক্ষ্যে এগিয়ে যাচ্ছি আমরা। চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনে বেশিরভাগ কার্যক্রম এখন অনলাইন ভিত্তিক করা হচ্ছে। পর্যায়ক্রমে করপোরেশনের প্রশাসনিক সব কাজ ইলেকট্রনিক সিস্টেমের আওতায় আনা হবে।