Dhaka ১২:০৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ১২ জুন ২০২৪, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

লোহাগাড়ায় সাংবাদিককে মারধর করে ক্যামেরা ছিনতাইয়ের মূলহোতা কারাগারে

  • Reporter Name
  • Update Time : ০৬:৩১:৪৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ১১ জুন ২০২৩
  • 6

মুহাম্মদ হানিফ, লোহাগাড়া : চট্টগ্রামের লোহাগাড়ায় সংবাদ সংগ্রহ করে ফেরার পথে সাংবাদিককে মারধর করে ক্যামেরা ছিনতাইয়ের ঘটনার মূলহোতা মেহরাব হোসন হৃদয় হাসান প্রকাশ হাসান বৈদ্যসহ দুজনকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত।
১১ জুন রবিবার  অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ফারদিন মোস্তাকিম তাসিনের আদালত এ আদেশ দেন। এর আগে আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করেছিলেন তারা। তবে আদালত তাদের জামিন না মঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। কারাগারে যাওয়া অন্য আসামি হলেন মো. বাবুল।
বাদীপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট সেলিম উল্লাহ চৌধুরী বলেন, ঘটনার পর থেকে আসামিরা পালিয়ে বেড়াচ্ছিল।

আজ ঘটনার মূলহোতা হাসান ও বাবুল আদালতে আত্মসমর্পণ করে আদালতে জামিন আবেদন করেন। অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ফারদিন মোস্তাকিম তাসিন শুনানি শেষে তাদের জামিন আবেদন না মঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

গত ১ জুন দুপুরে সংবাদ সংগ্রহ করে ফেরার পথে লোহাগাড়া উপজেলার চরম্বা ইউনিয়নের পূর্ব রাজঘাটা ফকিরখিল এলাকায় হাসান ও তার দলবল মিলে সাংবাদিক জাহেদুল ইসলামকে তুলে নিয়ে মারধর করে ক্যামেরা ছিনিয়ে নেয়। এ ঘটনায় তিনি বাদী হয়ে লোহাগাড়ায় থানায় মামলা করেন। মামলার পর পুলিশ সাজু আক্তার নামে এক আসামিকে গ্রেপ্তার করেন, যিনি হাসানসহ অন্যনান্যদের সঙ্গে মিলে সাংবাদিক জাহেদুল ইসলামকে পাশবিক কায়দায় নির্যাতন চালান।

সাংবাদিক জাহেদুল ইসলাম চট্টগ্রামের জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল সিভয়েস টুয়েন্টি ফোরের পাশাপাশি দৈনিক মানবকণ্ঠ ও দৈনিক সাঙ্গু পত্রিকায় কাজ করছেন। এছাড়া তিনি লোহাগাড়া প্রেসক্লাবের সাংগঠনিক সম্পাদক পদেও রয়েছেন। বাদীপক্ষের জামিন শুনানীর বিরোধিতার সময় এডভোকেট সেলিম উল্লাহর চৌধুরীর সঙ্গে ছিলেন এডভোকেট মোজাম্মেল হোসেন, এডভোকেট আবদুর রহিম, এডভোকেট সাজ্জাদুর রহমান, এডভোকেট তাহামিনা আক্তার চৌধুরী, এডভোকেট আনিসুল ইসলাম, এডভোকেট রোকসানা আক্তার।

Tag :

লোহাগাড়ায় সাংবাদিককে মারধর করে ক্যামেরা ছিনতাইয়ের মূলহোতা কারাগারে

Update Time : ০৬:৩১:৪৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ১১ জুন ২০২৩

মুহাম্মদ হানিফ, লোহাগাড়া : চট্টগ্রামের লোহাগাড়ায় সংবাদ সংগ্রহ করে ফেরার পথে সাংবাদিককে মারধর করে ক্যামেরা ছিনতাইয়ের ঘটনার মূলহোতা মেহরাব হোসন হৃদয় হাসান প্রকাশ হাসান বৈদ্যসহ দুজনকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত।
১১ জুন রবিবার  অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ফারদিন মোস্তাকিম তাসিনের আদালত এ আদেশ দেন। এর আগে আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করেছিলেন তারা। তবে আদালত তাদের জামিন না মঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। কারাগারে যাওয়া অন্য আসামি হলেন মো. বাবুল।
বাদীপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট সেলিম উল্লাহ চৌধুরী বলেন, ঘটনার পর থেকে আসামিরা পালিয়ে বেড়াচ্ছিল।

আজ ঘটনার মূলহোতা হাসান ও বাবুল আদালতে আত্মসমর্পণ করে আদালতে জামিন আবেদন করেন। অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ফারদিন মোস্তাকিম তাসিন শুনানি শেষে তাদের জামিন আবেদন না মঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

গত ১ জুন দুপুরে সংবাদ সংগ্রহ করে ফেরার পথে লোহাগাড়া উপজেলার চরম্বা ইউনিয়নের পূর্ব রাজঘাটা ফকিরখিল এলাকায় হাসান ও তার দলবল মিলে সাংবাদিক জাহেদুল ইসলামকে তুলে নিয়ে মারধর করে ক্যামেরা ছিনিয়ে নেয়। এ ঘটনায় তিনি বাদী হয়ে লোহাগাড়ায় থানায় মামলা করেন। মামলার পর পুলিশ সাজু আক্তার নামে এক আসামিকে গ্রেপ্তার করেন, যিনি হাসানসহ অন্যনান্যদের সঙ্গে মিলে সাংবাদিক জাহেদুল ইসলামকে পাশবিক কায়দায় নির্যাতন চালান।

সাংবাদিক জাহেদুল ইসলাম চট্টগ্রামের জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল সিভয়েস টুয়েন্টি ফোরের পাশাপাশি দৈনিক মানবকণ্ঠ ও দৈনিক সাঙ্গু পত্রিকায় কাজ করছেন। এছাড়া তিনি লোহাগাড়া প্রেসক্লাবের সাংগঠনিক সম্পাদক পদেও রয়েছেন। বাদীপক্ষের জামিন শুনানীর বিরোধিতার সময় এডভোকেট সেলিম উল্লাহর চৌধুরীর সঙ্গে ছিলেন এডভোকেট মোজাম্মেল হোসেন, এডভোকেট আবদুর রহিম, এডভোকেট সাজ্জাদুর রহমান, এডভোকেট তাহামিনা আক্তার চৌধুরী, এডভোকেট আনিসুল ইসলাম, এডভোকেট রোকসানা আক্তার।