Dhaka ১২:৫৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চট্টগ্রামের লোহাগাড়ায় ১৪দিন পর প্রবাসীর মৃতদেহ উদ্ধার, স্ত্রী, শাশুড়ি ও শালিকা আটক

  • Reporter Name
  • Update Time : ১১:৩১:৫৩ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৪ মার্চ ২০২৩
  • 5572

লোহাগাড়া প্রতিনিধি : চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার পুটিবিলা ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ড পহরচান্দা ছোট ধলিবিলা(হাসনা ভিটা) পাহাড়ী এলাকা থেকে এক প্রবাসীর অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী, শ্বাশুড়ি ও তার শালিকাকে আটক করা হয়। নিহতের নাম মনচুর আলম লেদু (২৬)।তিনি একই ইউনিয়নের নয়া পাড়ার ফয়েজ আহমদের পুত্র। তিনি দু সন্তানের জনক। আটককৃতদের যথাক্রমে নিহতের স্ত্রী রিনা আকতার (২৩), এনামের স্ত্রী সায়রা বেগম (৫৫) এবং তার কন্যা রুম্মান আকতার(১৫)। পুলিশ ও স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, এ বছরের ২৮ ফেব্রæয়ারি দুবাই থেকে মনসুর আলম লেদু দেশে আসেন। পরের দিন ১ মার্চ তিনি নিঁখোজ হন। এ ঘটনায় তার বোন বুলবুল আকতার লোহাগাড়া থানায় একটি অপরহন মামলা করেন। মামলাটি তদন্ত শুরু করেন এসআই শরীফুল ইসলাম পিপিএম। ১৪ মার্চ সকাল সাড়ে ১১টার দিকে মাটি চাপা অবস্থায় পাহাড়ি এলাকায় তার লাশ উদ্ধার করেন। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন সাতকানিয়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শিবলী নোমান, লোহাগাড়া থানার ওসি মুুহাম্মদ আতিকুর রহমান, পুটিবিলা ইউপির চেয়ারম্যান মুুহাম্মদ জাহাঙ্গীর হোসেন মানিক, সেকেন্ড অফিসার যুযুৎসু যশ চাকমা, এসআই শরীফুল ইসলাম পিপিএম, এসআই নুরুন্নবী, এসআই আলমগীর। নিহতের আত্মীয় মোঃ ফোরকান জানান, লেদু দুবাই প্রবাসী। তার শ্বশুরের পরিবারের সাথে পারিবারিক বিরোধ চলে আসছিল। তার শালিকার সাথে তার সম্পর্ক ছিল। নিহতের বড় ভাই খোরশেদ জানান, আমার ছোট ভাই দেশে ফেরার পরের দিন হতে নিঁখোজ হন। তার শ্বশুর বাড়ির পরিবারের সদস্যদের সাথে বিরোধ ছিল। শালিকার সাথে পরকীয়া ছিল। আমরা এ হত্যাকান্তের বিচার কামনা করছি।
পুটিবিলা ইউপি চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম মানিক জানান, এ ঘটনাটি মর্মান্তিক। মনসুর আলী রেমিটেন্স যোদ্ধা ও দুবাই প্রবাসী। নিঁখোজের আগের দিন আমার সাথে দেখা হয়েছিল। তার অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় জড়িত সকলের বিচার কামনা করছি।
লোহাগাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) মুুহাম্মদ আতিকুর রহমান জানান, দুবাই প্রবাসী, রেমিটেন্স যোদ্ধা মনচুর আলম লেদু নিঁখাজের ঘটনায় তার বোন বুলবুল আকতার একটি অপরহন মামলা দায়ের করেন। তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে ক্লু বের করে আমরা পহরচান্দা ছোট ধলিবিলা (হাসনা ভিটা) পাহাড়ী এলাকা থেকে অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করি। এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী রিনা আকতার, শ্বাশুড়ি সায়রা বেগম, শালিকা রুম্মান আকতারকে আটক করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে আমরা ধারণ করছি এটা পরকীয়া প্রেমের বলি। অনেকদিন ধরে তার শালিকার সাথে সম্পর্ক ছিল। এ ঘটনায় আরও তদন্ত চলছে বলেও তিনি জানান।

Tag :
সর্বাধিক পঠিত

চট্টগ্রামের লোহাগাড়ায় ১৪দিন পর প্রবাসীর মৃতদেহ উদ্ধার, স্ত্রী, শাশুড়ি ও শালিকা আটক

Update Time : ১১:৩১:৫৩ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৪ মার্চ ২০২৩

লোহাগাড়া প্রতিনিধি : চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার পুটিবিলা ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ড পহরচান্দা ছোট ধলিবিলা(হাসনা ভিটা) পাহাড়ী এলাকা থেকে এক প্রবাসীর অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী, শ্বাশুড়ি ও তার শালিকাকে আটক করা হয়। নিহতের নাম মনচুর আলম লেদু (২৬)।তিনি একই ইউনিয়নের নয়া পাড়ার ফয়েজ আহমদের পুত্র। তিনি দু সন্তানের জনক। আটককৃতদের যথাক্রমে নিহতের স্ত্রী রিনা আকতার (২৩), এনামের স্ত্রী সায়রা বেগম (৫৫) এবং তার কন্যা রুম্মান আকতার(১৫)। পুলিশ ও স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, এ বছরের ২৮ ফেব্রæয়ারি দুবাই থেকে মনসুর আলম লেদু দেশে আসেন। পরের দিন ১ মার্চ তিনি নিঁখোজ হন। এ ঘটনায় তার বোন বুলবুল আকতার লোহাগাড়া থানায় একটি অপরহন মামলা করেন। মামলাটি তদন্ত শুরু করেন এসআই শরীফুল ইসলাম পিপিএম। ১৪ মার্চ সকাল সাড়ে ১১টার দিকে মাটি চাপা অবস্থায় পাহাড়ি এলাকায় তার লাশ উদ্ধার করেন। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন সাতকানিয়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শিবলী নোমান, লোহাগাড়া থানার ওসি মুুহাম্মদ আতিকুর রহমান, পুটিবিলা ইউপির চেয়ারম্যান মুুহাম্মদ জাহাঙ্গীর হোসেন মানিক, সেকেন্ড অফিসার যুযুৎসু যশ চাকমা, এসআই শরীফুল ইসলাম পিপিএম, এসআই নুরুন্নবী, এসআই আলমগীর। নিহতের আত্মীয় মোঃ ফোরকান জানান, লেদু দুবাই প্রবাসী। তার শ্বশুরের পরিবারের সাথে পারিবারিক বিরোধ চলে আসছিল। তার শালিকার সাথে তার সম্পর্ক ছিল। নিহতের বড় ভাই খোরশেদ জানান, আমার ছোট ভাই দেশে ফেরার পরের দিন হতে নিঁখোজ হন। তার শ্বশুর বাড়ির পরিবারের সদস্যদের সাথে বিরোধ ছিল। শালিকার সাথে পরকীয়া ছিল। আমরা এ হত্যাকান্তের বিচার কামনা করছি।
পুটিবিলা ইউপি চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম মানিক জানান, এ ঘটনাটি মর্মান্তিক। মনসুর আলী রেমিটেন্স যোদ্ধা ও দুবাই প্রবাসী। নিঁখোজের আগের দিন আমার সাথে দেখা হয়েছিল। তার অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় জড়িত সকলের বিচার কামনা করছি।
লোহাগাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) মুুহাম্মদ আতিকুর রহমান জানান, দুবাই প্রবাসী, রেমিটেন্স যোদ্ধা মনচুর আলম লেদু নিঁখাজের ঘটনায় তার বোন বুলবুল আকতার একটি অপরহন মামলা দায়ের করেন। তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে ক্লু বের করে আমরা পহরচান্দা ছোট ধলিবিলা (হাসনা ভিটা) পাহাড়ী এলাকা থেকে অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করি। এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী রিনা আকতার, শ্বাশুড়ি সায়রা বেগম, শালিকা রুম্মান আকতারকে আটক করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে আমরা ধারণ করছি এটা পরকীয়া প্রেমের বলি। অনেকদিন ধরে তার শালিকার সাথে সম্পর্ক ছিল। এ ঘটনায় আরও তদন্ত চলছে বলেও তিনি জানান।