Dhaka ১২:৩৬ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মেঘনার মানিকারচর ইউপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানকে জরিমানা

  • Reporter Name
  • Update Time : ০৭:৫৭:৩৬ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৬ মার্চ ২০২৩
  • 5410

নিজস্ব প্রতিবেদক : কুমিল্লার মেঘনা উপজেলার মানিকারচর ইউনিয়নের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আ. বাতেনকে সরকারি গাছ কাটার অভিযোগে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। রোববার ৫ মার্চ উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, সহকারি কমিশনার ভূমি লিটন চন্দ্র দে এ জরিমানা প্রদান করেছেন। সরেজমিনে দেখা যায়, মানিকারচর বাজার-গোবিন্দপুর সড়কের (মানিকারচর বাজার এলাকা) পাশের ৪-৫টি গাছ শ্রমিকরা কেটে নিয়ে যাচ্ছে। খবর পেয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট ঘটনাস্থলে এসে প্রশাসনের অনুমতি ছাড়া গাছ কাটার অপরাধে ইউপি চেয়ারম্যানকে ১০ হাজার টাকা জরিমানাসহ আর কোন গাছ কিংবা ঢালও কাটা যাবে না মর্মে কঠোর নির্দেশনা দিয়েছেন। এ বিষয়ে মানিকারচর ইউনিয়নের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আ. বাতেনের নিকট জানতে চাইলে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এই জায়গা আমাদের। আমরাই গাছ লাগিয়েছি। তবে প্রশাসনের অনুমতি নেইনি। অন্যদিকে লুটেরচর ইউনিয়নের মোহাম্মদপুর গ্রামের শাহজালাল নামের এক ব্যক্তি জায়গার প্রকৃত মালিক দাবি করেন। তিনি বলেন, জোরপূর্বক আমার জায়গা চেয়ারম্যান দখল করার চেষ্টা চালাচ্ছেন। জানা গেছে, মানিকারচর ইউনিয়নের নির্বাচিত চেয়ারম্যান জাকির গ্রেফতারের পর ইউপি সদস্য আ. বাতেন ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পাওয়ার পর থেকে কুমিল্লার মেঘনা উপজেলার মানিকারচর ইউনিয়নে একের পর এক দখল বাণিজ্য ও মাদক ব্যবসার সিন্ডিকেট গড়ে তুলেছে।

Tag :
সর্বাধিক পঠিত

https://dainiksurjodoy.com/wp-content/uploads/2023/12/Green-White-Modern-Pastel-Travel-Agency-Discount-Video5-2.gif

নিউইয়র্কে সেইভ দ্য পিপল’র উদ্যোগে হালাল খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

মেঘনার মানিকারচর ইউপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানকে জরিমানা

Update Time : ০৭:৫৭:৩৬ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৬ মার্চ ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদক : কুমিল্লার মেঘনা উপজেলার মানিকারচর ইউনিয়নের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আ. বাতেনকে সরকারি গাছ কাটার অভিযোগে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। রোববার ৫ মার্চ উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, সহকারি কমিশনার ভূমি লিটন চন্দ্র দে এ জরিমানা প্রদান করেছেন। সরেজমিনে দেখা যায়, মানিকারচর বাজার-গোবিন্দপুর সড়কের (মানিকারচর বাজার এলাকা) পাশের ৪-৫টি গাছ শ্রমিকরা কেটে নিয়ে যাচ্ছে। খবর পেয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট ঘটনাস্থলে এসে প্রশাসনের অনুমতি ছাড়া গাছ কাটার অপরাধে ইউপি চেয়ারম্যানকে ১০ হাজার টাকা জরিমানাসহ আর কোন গাছ কিংবা ঢালও কাটা যাবে না মর্মে কঠোর নির্দেশনা দিয়েছেন। এ বিষয়ে মানিকারচর ইউনিয়নের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আ. বাতেনের নিকট জানতে চাইলে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এই জায়গা আমাদের। আমরাই গাছ লাগিয়েছি। তবে প্রশাসনের অনুমতি নেইনি। অন্যদিকে লুটেরচর ইউনিয়নের মোহাম্মদপুর গ্রামের শাহজালাল নামের এক ব্যক্তি জায়গার প্রকৃত মালিক দাবি করেন। তিনি বলেন, জোরপূর্বক আমার জায়গা চেয়ারম্যান দখল করার চেষ্টা চালাচ্ছেন। জানা গেছে, মানিকারচর ইউনিয়নের নির্বাচিত চেয়ারম্যান জাকির গ্রেফতারের পর ইউপি সদস্য আ. বাতেন ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পাওয়ার পর থেকে কুমিল্লার মেঘনা উপজেলার মানিকারচর ইউনিয়নে একের পর এক দখল বাণিজ্য ও মাদক ব্যবসার সিন্ডিকেট গড়ে তুলেছে।