Dhaka ০২:০০ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শরিক দলগুলোর আসন নিয়ে সমঝোতা চূড়ান্ত, কপাল পুড়তে যাচ্ছে মাইজভাণ্ডারীর

  • কুমার শুভ্র
  • Update Time : ০৩:০৮:১৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০২৩
  • 14

কুমার শুভ্র: ১৪ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ১৪ দলের শরিক দলগুলোর আসন ছাড় বা সমঝোতা চূড়ান্ত করেছে আওয়ামী লীগ। বর্তমান সংসদে জোটের ৪টি দলের ৮ জন সংসদ সদস্য থাকলেও এবার তিনটি দল পাচ্ছে ৭টিতে ছাড়। এর মধ্যে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির রাশেদ খান মেননকে বরিশাল-৩, মুস্তফা লুৎফুল্লাহকে সাতক্ষীরা-১ এবং ফজলে হোসেন বাদশাকে রাজশাহী-২ আসন ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। জাসদের হাসানুল হক ইনুকে কুষ্টিয়া-২, এ কে এম রেজাউল করিম তানসেনকে বগুড়া-৪ এবং মোশাররফ হোসেনকে লক্ষীপুর -৪ আসন ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

এছাড়া জাতীয় পার্টির (জেপি-মঞ্জু) চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন মঞ্জুকে পিরোজপুর-২ আসন ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। চট্টগ্রাম-২ ফটিকছড়ি আসনটি এবার আর ১৪ দলের শরিক দলকে না ছাড়ার সম্ভাবনা বেশী। গতকাল ১৪ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে শরিক তিনটি দলকে যে সাতটি আসন ছেড়ে দেওয়া হয়েছে, সেখানে তরিকত ফেডারেশনের চেয়ারম্যান সৈয়দ নজিবুল বশর মাইজভাণ্ডারীর জন্য চট্টগ্রাম-২ (ফটিকছড়ি) আসনটি নেই। হয়তো এবার ভাণ্ডারীর কপাল পুড়তে যাচ্ছে। তরিকত ফেডারেশনের চেয়ারম্যান সৈয়দ নজিবুল বশর মাইজভাণ্ডারীর বিষয়ে আওয়ামী লীগ এখন পর্যন্ত আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু জানায়নি। তবে ১৪ দলের শরিক দলগুলোর আসন ছাড় বা সমঝোতা কয়েকমাস আগে নজিবুল বশর মাইজভাণ্ডারী বলেছিলেন, আমার সিট আমি ঠিক করি। সরকারও জানে। আমি ভেসে আসি নাই। মাইজভান্ডারের দিকে যারাই অসৎ উদ্দেশ্যে হাত দিয়েছে, তাদের হাত পুড়ে গেছে। জানা গেছে, এই আসনে ২১ জনকে পেছনে ফেলে নৌকার মনোনয়ন পেয়েছেন সংসদের নারী সংরক্ষিত আসনের খাদিজাতুল আনোয়ার সনি।

দশম ও একাদশ সংসদ নির্বাচনে চট্টগ্রাম ২ ফটিকছড়ি আসন থেকে তরিকত ফেডারেশনের প্রার্থী সৈয়দ নজিবুল বশর মাইজভান্ডারী নৌকা প্রতীক নিয়ে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন। এদিকে চট্টগ্রাম-২ ফটিকছড়ি আসনটিতে নৌকা প্রতিক আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী পাবে নাকি ১৪ দলের শরিকদল তরীকত ফেডারেশনের প্রার্থী পাবে তা নিয়ে আশংকা দেখা দেয়ায় আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী খাদিতাজুল আনোয়ারা সনিকে বহাল রাখতে দলীয় সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন দলের তৃণমুলের নেতাকর্মীরা। কারণ দীর্ঘদিন এই নৌকা প্রতীকের প্রার্থী হিসেবে টানা দুটি নির্বাচনে ১৪ দলের শরিকদল তরীকত ফেডারেশনের প্রার্থী নজিবুল বশর মাইজভান্ডারী সংসদ সদস্য (এমপি) নির্বাচিত হলেও স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের আস্থা অর্জন করতে পারেননি তিনি। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জোটের শরিকদল তরীকত ফেডারেশনের চেয়ারম্যান নজিবুল বশর মাইজভান্ডারীকে বাদ দিয়ে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থীকে নৌকা প্রতীকের মনোনয়ন দেওয়ার জন্য চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগ ও ফটিকছড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতারা সকলে ঐক্যবদ্ধ আছেন।

আওয়ামী লীগের স্থানীয় নেতাকর্মীরা বলেন, নজিবুল বশর মাইজভান্ডারী আওয়ামী লীগের কেউ নন। ১৪ দলের শরিকদল হয়ে নৌকার প্রার্থী হিসেবে এমপি হলেও ফটিকছড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের তিনি কখনও কাছে টানেননি। উল্টো নানাভাবে হয়রানি ও ভোগান্তিতে ফেলেছেন।

Tag :
সর্বাধিক পঠিত

https://dainiksurjodoy.com/wp-content/uploads/2023/12/Green-White-Modern-Pastel-Travel-Agency-Discount-Video5-2.gif

সংঘর্ষে রণক্ষেত্র যাত্রাবাড়ীর কাজলা থেকে শনিরআখড়া

শরিক দলগুলোর আসন নিয়ে সমঝোতা চূড়ান্ত, কপাল পুড়তে যাচ্ছে মাইজভাণ্ডারীর

Update Time : ০৩:০৮:১৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০২৩

কুমার শুভ্র: ১৪ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ১৪ দলের শরিক দলগুলোর আসন ছাড় বা সমঝোতা চূড়ান্ত করেছে আওয়ামী লীগ। বর্তমান সংসদে জোটের ৪টি দলের ৮ জন সংসদ সদস্য থাকলেও এবার তিনটি দল পাচ্ছে ৭টিতে ছাড়। এর মধ্যে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির রাশেদ খান মেননকে বরিশাল-৩, মুস্তফা লুৎফুল্লাহকে সাতক্ষীরা-১ এবং ফজলে হোসেন বাদশাকে রাজশাহী-২ আসন ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। জাসদের হাসানুল হক ইনুকে কুষ্টিয়া-২, এ কে এম রেজাউল করিম তানসেনকে বগুড়া-৪ এবং মোশাররফ হোসেনকে লক্ষীপুর -৪ আসন ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

এছাড়া জাতীয় পার্টির (জেপি-মঞ্জু) চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন মঞ্জুকে পিরোজপুর-২ আসন ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। চট্টগ্রাম-২ ফটিকছড়ি আসনটি এবার আর ১৪ দলের শরিক দলকে না ছাড়ার সম্ভাবনা বেশী। গতকাল ১৪ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে শরিক তিনটি দলকে যে সাতটি আসন ছেড়ে দেওয়া হয়েছে, সেখানে তরিকত ফেডারেশনের চেয়ারম্যান সৈয়দ নজিবুল বশর মাইজভাণ্ডারীর জন্য চট্টগ্রাম-২ (ফটিকছড়ি) আসনটি নেই। হয়তো এবার ভাণ্ডারীর কপাল পুড়তে যাচ্ছে। তরিকত ফেডারেশনের চেয়ারম্যান সৈয়দ নজিবুল বশর মাইজভাণ্ডারীর বিষয়ে আওয়ামী লীগ এখন পর্যন্ত আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু জানায়নি। তবে ১৪ দলের শরিক দলগুলোর আসন ছাড় বা সমঝোতা কয়েকমাস আগে নজিবুল বশর মাইজভাণ্ডারী বলেছিলেন, আমার সিট আমি ঠিক করি। সরকারও জানে। আমি ভেসে আসি নাই। মাইজভান্ডারের দিকে যারাই অসৎ উদ্দেশ্যে হাত দিয়েছে, তাদের হাত পুড়ে গেছে। জানা গেছে, এই আসনে ২১ জনকে পেছনে ফেলে নৌকার মনোনয়ন পেয়েছেন সংসদের নারী সংরক্ষিত আসনের খাদিজাতুল আনোয়ার সনি।

দশম ও একাদশ সংসদ নির্বাচনে চট্টগ্রাম ২ ফটিকছড়ি আসন থেকে তরিকত ফেডারেশনের প্রার্থী সৈয়দ নজিবুল বশর মাইজভান্ডারী নৌকা প্রতীক নিয়ে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন। এদিকে চট্টগ্রাম-২ ফটিকছড়ি আসনটিতে নৌকা প্রতিক আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী পাবে নাকি ১৪ দলের শরিকদল তরীকত ফেডারেশনের প্রার্থী পাবে তা নিয়ে আশংকা দেখা দেয়ায় আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী খাদিতাজুল আনোয়ারা সনিকে বহাল রাখতে দলীয় সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন দলের তৃণমুলের নেতাকর্মীরা। কারণ দীর্ঘদিন এই নৌকা প্রতীকের প্রার্থী হিসেবে টানা দুটি নির্বাচনে ১৪ দলের শরিকদল তরীকত ফেডারেশনের প্রার্থী নজিবুল বশর মাইজভান্ডারী সংসদ সদস্য (এমপি) নির্বাচিত হলেও স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের আস্থা অর্জন করতে পারেননি তিনি। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জোটের শরিকদল তরীকত ফেডারেশনের চেয়ারম্যান নজিবুল বশর মাইজভান্ডারীকে বাদ দিয়ে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থীকে নৌকা প্রতীকের মনোনয়ন দেওয়ার জন্য চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগ ও ফটিকছড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতারা সকলে ঐক্যবদ্ধ আছেন।

আওয়ামী লীগের স্থানীয় নেতাকর্মীরা বলেন, নজিবুল বশর মাইজভান্ডারী আওয়ামী লীগের কেউ নন। ১৪ দলের শরিকদল হয়ে নৌকার প্রার্থী হিসেবে এমপি হলেও ফটিকছড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের তিনি কখনও কাছে টানেননি। উল্টো নানাভাবে হয়রানি ও ভোগান্তিতে ফেলেছেন।