Dhaka ০১:২৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ৩০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চট্টগ্রামের ছয় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে বদলি করা হয়েছে

  • Reporter Name
  • Update Time : ০১:১৭:৫১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৮ ডিসেম্বর ২০২৩
  • 9

চট্টগ্রাম প্রতিবেদক: দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে চট্টগ্রামের ছয় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে (ইউএনও) বদলি করা হয়েছে। নির্বাচন কমিশনের (ইসি) নির্দেশনায় তাদেরকে অন্য উপজেলায় পদায়ন করা হয়। ৭ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার নির্বাচন কমিশনের (ইসি) সম্মতিক্রমে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের মাঠ প্রশাসন-২ শাখার উপসচিব ভাস্কর দেবনাথ বাপ্পীর সই করা দুটি পৃথক আদেশে তাদের বদলি করা হয়।

বদলি আদেশে বোয়ালখালীর মোহাম্মদ মামুনকে বান্দরবানের থানচিতে, রাঙ্গুনিয়ার আতাউল গনি ওসমানীকে বান্দরবানের আলীকদমে, পটিয়ার মোহাম্মদ আতিকুল মামুনকে বান্দরবানের রোয়াংছড়িতে, সন্দ্বীপের সম্রাট খীসাকে কক্সবাজার সদরে, কর্ণফুলীর মো. মামুনুর রশীদকে খাগড়াছড়ির দীঘিনালায়, রাউজানের আবদুস সামাদ শিকদারকে কুমিল্লার মুরাদনগরে বদলি করা হয়েছে।

এদিকে, কক্সবাজারের ইমরান হোসেন সজীবকে বোয়ালখালী, কুমিল্লার নাঙ্গলকোটের মো. রায়হান মেহেবুবকে রাঙ্গুনিয়ায়, কক্সবাজারের কুতুবদিয়ার দীপঙ্কর তঞ্চঙ্গ্যাকে কর্ণফুলীতে, বান্দরবানের রোয়াংছড়ির মো. খোরশেদ আলম চৌধুরীকে সন্দ্বীপে, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ার অংগ্যজাই মারমাকে রাউজানে এবং কুমিল্লার মুরাদনগরের মোহাম্মদ আলাউদ্দিন ভূঁঞা জনীকে পটিয়ায় পদায়ন করা হয়েছে। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সুষ্ঠ করার লক্ষ্যে দেশের সব ইউএনওকে পর্যায়ক্রমে বদলি করার সিদ্ধান্ত নেয় ইসি।

Tag :
সর্বাধিক পঠিত

https://dainiksurjodoy.com/wp-content/uploads/2023/12/Green-White-Modern-Pastel-Travel-Agency-Discount-Video5-2.gif

রাজধানীর মতিঝিলে লক্ষ্মী নারায়ণ জিউ মন্দিরের ২০০ কোটি টাকার সম্পত্তি উদ্ধার

চট্টগ্রামের ছয় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে বদলি করা হয়েছে

Update Time : ০১:১৭:৫১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৮ ডিসেম্বর ২০২৩

চট্টগ্রাম প্রতিবেদক: দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে চট্টগ্রামের ছয় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে (ইউএনও) বদলি করা হয়েছে। নির্বাচন কমিশনের (ইসি) নির্দেশনায় তাদেরকে অন্য উপজেলায় পদায়ন করা হয়। ৭ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার নির্বাচন কমিশনের (ইসি) সম্মতিক্রমে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের মাঠ প্রশাসন-২ শাখার উপসচিব ভাস্কর দেবনাথ বাপ্পীর সই করা দুটি পৃথক আদেশে তাদের বদলি করা হয়।

বদলি আদেশে বোয়ালখালীর মোহাম্মদ মামুনকে বান্দরবানের থানচিতে, রাঙ্গুনিয়ার আতাউল গনি ওসমানীকে বান্দরবানের আলীকদমে, পটিয়ার মোহাম্মদ আতিকুল মামুনকে বান্দরবানের রোয়াংছড়িতে, সন্দ্বীপের সম্রাট খীসাকে কক্সবাজার সদরে, কর্ণফুলীর মো. মামুনুর রশীদকে খাগড়াছড়ির দীঘিনালায়, রাউজানের আবদুস সামাদ শিকদারকে কুমিল্লার মুরাদনগরে বদলি করা হয়েছে।

এদিকে, কক্সবাজারের ইমরান হোসেন সজীবকে বোয়ালখালী, কুমিল্লার নাঙ্গলকোটের মো. রায়হান মেহেবুবকে রাঙ্গুনিয়ায়, কক্সবাজারের কুতুবদিয়ার দীপঙ্কর তঞ্চঙ্গ্যাকে কর্ণফুলীতে, বান্দরবানের রোয়াংছড়ির মো. খোরশেদ আলম চৌধুরীকে সন্দ্বীপে, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ার অংগ্যজাই মারমাকে রাউজানে এবং কুমিল্লার মুরাদনগরের মোহাম্মদ আলাউদ্দিন ভূঁঞা জনীকে পটিয়ায় পদায়ন করা হয়েছে। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সুষ্ঠ করার লক্ষ্যে দেশের সব ইউএনওকে পর্যায়ক্রমে বদলি করার সিদ্ধান্ত নেয় ইসি।