Dhaka ১০:৫৯ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ না পেলে অনশনের ঘোষণা

  • Reporter Name
  • Update Time : ০৬:১৩:০১ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩০ জুলাই ২০২৩
  • 18

সূর্যোদয় গ্রতিবেদক : আগামী ৩১ জুলাই সোমবারের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ না পেলে ১ আগস্ট মঙ্গলবার থেকে কাফনের কাপড় পরে আমরণ অনশন পালনের ঘোষণা দিয়েছেন বেসরকারি মাধ্যমিক শিক্ষা জাতীয়করণের দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষকরা।

৩০ জুলাই রোববার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে জাতীয়করণের দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষকরা নতুন এই কর্মসূচি ঘোষণা করেন।
বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির (বিটিএ) ব্যানারে ২০তম দিনের মতো অবস্থান কর্মসূচি পালন করছেন বেসরকারি মাধ্যমিক শিক্ষকরা। গত ১১ জুলাই থেকে তারা এই লাগাতার অবস্থান কর্মসূচি শুরু করেন।
বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির (বিটিএ) সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ শেখ কাওছার আহমেদ বলেন, আমরা জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে টানা ২০তম দিনের মতো অবস্থান কর্মসূচি পালন করছি। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আমরা পাঁচ মিনিটের কথা বলতে চাই। সেই পাঁচ মিনিটের সাক্ষাৎ যদি আমরা আগামী ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে না পাই, বা আমাদের নির্দেশনা দিয়ে শ্রেণীকক্ষে ফেরত না নিলে আগামী ১ আগস্ট থেকে আমরা কাফনের কাপড় পরে প্রেসক্লাবের সামনে দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আমরণ অনশন করব।

তিনি আরও বলেন, ওইদিন সকাল ৯টায় আমরা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ ১৯৭৫ এর ১৫ আগস্ট শহীদদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে আমাদের কর্মসূচি শুরু করব।

বিটিএ’র সাধারণ সম্পাদক বলেন, আমাদের কথা একটাই – প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ ছাড়া আমরা শ্রেণীকক্ষে ফিরে যাব না। যতদিন লাগুক আমরা এখানে থাকব।
এর আগে বিটিএ’র সভাপতি মো. বজলুর রহমাস মিয়া বলেছিলেন, এমপিওভুক্ত শিক্ষকগণ মাত্র ২৫ শতাংশ উৎসব ভাতা, এক হাজার টাকা বাড়ি ভাড়া এবং ৫০০ টাকা চিকিৎসা ভাতা পান। অথচ একই কারিকুলামের অধীনে একই সিলেবাস একই অ্যাকাডেমিক সময়সূচি, একইভাবে প্রশ্নপত্র প্রণয়ন ও উত্তরপত্র মূল্যায়নের কাজে নিয়োজিত থেকেও আর্থিক সুবিধার ক্ষেত্রে সরকারি ও বেসরকারি শিক্ষক-কর্মচারীদের মধ্যে রয়েছে পাহাড়সম বৈষম্য। তাছাড়া বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠান প্রধানদের বেতন স্কেল সরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রধানদের বেতন স্কেলের একধাপ নিচে। এবং সহকারী প্রধান শিক্ষকদের উচ্চতর স্কেল না দেওয়ার ফলে উচ্চতর স্কেলপ্রাপ্ত সিনিয়র শিক্ষকদের বেতন স্কেল ও সহকারী প্রধান শিক্ষকদের বেতন স্কেল সমান হওয়ায় প্রতিষ্ঠানপ্রধান ও সহকারী প্রধান শিক্ষকদের মধ্যে দীর্ঘদিনের অসন্তোষ রয়েছে। মাধ্যমিক শিক্ষা জাতীয়করণের দাবিতে বছরের পর বছর উপজেলা থেকে শুরু করে জেলা ও বিভাগীয় শহরে সমাবেশ, মানববন্ধন, বিক্ষোভ মিছিল, প্রতীকী অনশন, অবস্থান ধর্মঘট, কর্মবিরতিসহ প্রধানমন্ত্রী, অর্থমন্ত্রী ও শিক্ষামন্ত্রী বারবার স্মারকলিপি দেওয়া হয়েছে।

এদিকে জাতীয়করণের দাবিতে আন্দোলনরত কয়েকশ শিক্ষকের অবস্থান কর্মসূচির কারণে সকাল থেকে প্রেসক্লাবের সামনে একপাশের রাস্তায় যান চলচল বন্ধ রয়েছে।

Tag :
সর্বাধিক পঠিত

https://dainiksurjodoy.com/wp-content/uploads/2023/12/Green-White-Modern-Pastel-Travel-Agency-Discount-Video5-2.gif

দেশের সব স্কুল-কলেজ অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ

প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ না পেলে অনশনের ঘোষণা

Update Time : ০৬:১৩:০১ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩০ জুলাই ২০২৩

সূর্যোদয় গ্রতিবেদক : আগামী ৩১ জুলাই সোমবারের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ না পেলে ১ আগস্ট মঙ্গলবার থেকে কাফনের কাপড় পরে আমরণ অনশন পালনের ঘোষণা দিয়েছেন বেসরকারি মাধ্যমিক শিক্ষা জাতীয়করণের দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষকরা।

৩০ জুলাই রোববার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে জাতীয়করণের দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষকরা নতুন এই কর্মসূচি ঘোষণা করেন।
বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির (বিটিএ) ব্যানারে ২০তম দিনের মতো অবস্থান কর্মসূচি পালন করছেন বেসরকারি মাধ্যমিক শিক্ষকরা। গত ১১ জুলাই থেকে তারা এই লাগাতার অবস্থান কর্মসূচি শুরু করেন।
বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির (বিটিএ) সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ শেখ কাওছার আহমেদ বলেন, আমরা জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে টানা ২০তম দিনের মতো অবস্থান কর্মসূচি পালন করছি। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আমরা পাঁচ মিনিটের কথা বলতে চাই। সেই পাঁচ মিনিটের সাক্ষাৎ যদি আমরা আগামী ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে না পাই, বা আমাদের নির্দেশনা দিয়ে শ্রেণীকক্ষে ফেরত না নিলে আগামী ১ আগস্ট থেকে আমরা কাফনের কাপড় পরে প্রেসক্লাবের সামনে দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আমরণ অনশন করব।

তিনি আরও বলেন, ওইদিন সকাল ৯টায় আমরা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ ১৯৭৫ এর ১৫ আগস্ট শহীদদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে আমাদের কর্মসূচি শুরু করব।

বিটিএ’র সাধারণ সম্পাদক বলেন, আমাদের কথা একটাই – প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ ছাড়া আমরা শ্রেণীকক্ষে ফিরে যাব না। যতদিন লাগুক আমরা এখানে থাকব।
এর আগে বিটিএ’র সভাপতি মো. বজলুর রহমাস মিয়া বলেছিলেন, এমপিওভুক্ত শিক্ষকগণ মাত্র ২৫ শতাংশ উৎসব ভাতা, এক হাজার টাকা বাড়ি ভাড়া এবং ৫০০ টাকা চিকিৎসা ভাতা পান। অথচ একই কারিকুলামের অধীনে একই সিলেবাস একই অ্যাকাডেমিক সময়সূচি, একইভাবে প্রশ্নপত্র প্রণয়ন ও উত্তরপত্র মূল্যায়নের কাজে নিয়োজিত থেকেও আর্থিক সুবিধার ক্ষেত্রে সরকারি ও বেসরকারি শিক্ষক-কর্মচারীদের মধ্যে রয়েছে পাহাড়সম বৈষম্য। তাছাড়া বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠান প্রধানদের বেতন স্কেল সরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রধানদের বেতন স্কেলের একধাপ নিচে। এবং সহকারী প্রধান শিক্ষকদের উচ্চতর স্কেল না দেওয়ার ফলে উচ্চতর স্কেলপ্রাপ্ত সিনিয়র শিক্ষকদের বেতন স্কেল ও সহকারী প্রধান শিক্ষকদের বেতন স্কেল সমান হওয়ায় প্রতিষ্ঠানপ্রধান ও সহকারী প্রধান শিক্ষকদের মধ্যে দীর্ঘদিনের অসন্তোষ রয়েছে। মাধ্যমিক শিক্ষা জাতীয়করণের দাবিতে বছরের পর বছর উপজেলা থেকে শুরু করে জেলা ও বিভাগীয় শহরে সমাবেশ, মানববন্ধন, বিক্ষোভ মিছিল, প্রতীকী অনশন, অবস্থান ধর্মঘট, কর্মবিরতিসহ প্রধানমন্ত্রী, অর্থমন্ত্রী ও শিক্ষামন্ত্রী বারবার স্মারকলিপি দেওয়া হয়েছে।

এদিকে জাতীয়করণের দাবিতে আন্দোলনরত কয়েকশ শিক্ষকের অবস্থান কর্মসূচির কারণে সকাল থেকে প্রেসক্লাবের সামনে একপাশের রাস্তায় যান চলচল বন্ধ রয়েছে।