Dhaka ০২:৫৪ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চট্টগ্রামে পুলিশের গাড়ি ভাঙচুর করেছেন জামায়াত-শিবির

  • Reporter Name
  • Update Time : ০৯:৪৫:০৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৮ জুলাই ২০২৩
  • 13

চট্টগ্রাম ব্যুরো : অনুমতি ছাড়া চট্টগ্রামে ঝটিকা মিছিল করেছে জামায়াতে ইসলামী। এসময় মিছিলে বাধা দেওয়াকে কেন্দ্র করে পুলিশের ওপর হামলা এবং পুলিশের গাড়ি ভাঙচুর করেন জামায়াত-শিবিরের কর্মীরা। হামলায় পুলিশের এক সিনিয়র সহকারী কমিশনারহ চার সদস্য আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় জামায়াত শিবিরের ২১ নেতাকর্মীকে আটক করেছে পুলিশ। ২৮ জুলাই শুক্রবার জুমার নামাজের পর চট্টগ্রামের ডবলমুরিং থানার চৌমুহনী মোড়ে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, জুমার নামাজ শেষে আগ্রাবাদ থেকে জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীরা বিক্ষোভ মিছিল বের করেন। মিছিলটি চৌমুহনী এলাকায় পৌঁছালে সেখানে পুলিশ তাদের বাধা দেয়। এতে পুলিশের সঙ্গে জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীদের সংঘর্ষ হয়।

এ সময় জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট-পাটকেল ছোড়েন এবং পুলিশের গাড়ি ভাঙচুর করেন। পরে পুলিশের ধাওয়ায় তারা ছত্রভঙ্গ হয়ে যান। তত্ত¡াবধায়ক সরকার প্রতিষ্ঠা, কারাবন্দি জামায়াত নেতাদের মুক্তি ও দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি রোধসহ ১০ দফা দাবিতে জামায়াত গত ২২ জুলাই সমাবেশের অনুমতি না পেয়ে ২৮ জুলাই পুনরায় সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল করার অনুমতি চায়। সিএমপি কমিশনারের কাছে এই অনুমতি চেয়ে আবেদন করে দলটি। তবে অনুমতি না পেয়ে তারা ঝটিকা মিছিল বের করে।

ডবলমুরিং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাখাওয়াৎ হোসেন দৈনিক সূর্যোদয়কে বলেন, চৌমুহনী মোড় এলাকায় জামায়াত ঝটিকা মিছিল করার চেষ্টা করে। এসময় তারা পুলিশের ওপর হামলা চালায়। এ ঘটনায় জামায়াত-শিবিরের ২১ জনকে আটক করা হয়েছে।

Tag :
সর্বাধিক পঠিত

https://dainiksurjodoy.com/wp-content/uploads/2023/12/Green-White-Modern-Pastel-Travel-Agency-Discount-Video5-2.gif

দেশের সব স্কুল-কলেজ অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ

চট্টগ্রামে পুলিশের গাড়ি ভাঙচুর করেছেন জামায়াত-শিবির

Update Time : ০৯:৪৫:০৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৮ জুলাই ২০২৩

চট্টগ্রাম ব্যুরো : অনুমতি ছাড়া চট্টগ্রামে ঝটিকা মিছিল করেছে জামায়াতে ইসলামী। এসময় মিছিলে বাধা দেওয়াকে কেন্দ্র করে পুলিশের ওপর হামলা এবং পুলিশের গাড়ি ভাঙচুর করেন জামায়াত-শিবিরের কর্মীরা। হামলায় পুলিশের এক সিনিয়র সহকারী কমিশনারহ চার সদস্য আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় জামায়াত শিবিরের ২১ নেতাকর্মীকে আটক করেছে পুলিশ। ২৮ জুলাই শুক্রবার জুমার নামাজের পর চট্টগ্রামের ডবলমুরিং থানার চৌমুহনী মোড়ে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, জুমার নামাজ শেষে আগ্রাবাদ থেকে জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীরা বিক্ষোভ মিছিল বের করেন। মিছিলটি চৌমুহনী এলাকায় পৌঁছালে সেখানে পুলিশ তাদের বাধা দেয়। এতে পুলিশের সঙ্গে জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীদের সংঘর্ষ হয়।

এ সময় জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট-পাটকেল ছোড়েন এবং পুলিশের গাড়ি ভাঙচুর করেন। পরে পুলিশের ধাওয়ায় তারা ছত্রভঙ্গ হয়ে যান। তত্ত¡াবধায়ক সরকার প্রতিষ্ঠা, কারাবন্দি জামায়াত নেতাদের মুক্তি ও দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি রোধসহ ১০ দফা দাবিতে জামায়াত গত ২২ জুলাই সমাবেশের অনুমতি না পেয়ে ২৮ জুলাই পুনরায় সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল করার অনুমতি চায়। সিএমপি কমিশনারের কাছে এই অনুমতি চেয়ে আবেদন করে দলটি। তবে অনুমতি না পেয়ে তারা ঝটিকা মিছিল বের করে।

ডবলমুরিং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাখাওয়াৎ হোসেন দৈনিক সূর্যোদয়কে বলেন, চৌমুহনী মোড় এলাকায় জামায়াত ঝটিকা মিছিল করার চেষ্টা করে। এসময় তারা পুলিশের ওপর হামলা চালায়। এ ঘটনায় জামায়াত-শিবিরের ২১ জনকে আটক করা হয়েছে।