Dhaka ০৪:৩১ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ৯ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

জয়পুরহাটে গ্রাম্য কবিরাজকে হত্যার দায়ে সৎ ভাইয়ের মৃত্যদন্ড

  • Reporter Name
  • Update Time : ০৪:১০:১৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুলাই ২০২৩
  • 16

মোফাজ্জল হোসেন, জয়পুরহাট প্রতিনিধি : জয়পুরহাটের ক্ষেতলালে পুর্ব শত্রæতার জের ধরে খাজামুদ্দিন (৮৩) নামে এক কবিরাজকে গলা কেটে হত্যার দায়ে বিমাতা ভাই সাদ্দাম হোসেনকে (৩২) মৃত্যুদন্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত।

২৩ জুলাই রোববার দুপুরে জয়পুরহাট জেলা ও দায়রা জজ আদালতের সিনয়র দায়রা জজ নুর হোসেন এ রায় দেন। দন্ডপ্রাপ্ত সাদ্দাম হোসেন (৩২) জেলার ক্ষেতলাল উপজেলার মালিপাড়া গ্রামের বাসিন্দা মৃত জসিম উদ্দিনের ছেলে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জয়পুরহাট আদালতের সরকারি কৌসলি এ্যাড. নৃপেন্দ্রনাথ মন্ডল। মামলা সুত্রে

জানা যায়, ২০১৯ সালের ১১ নভেম্বর রাত সাড়ে আটটার দিকে জয়পুরহাটের ক্ষেতলাল উপজেলার দাশড়া ফকিড় পাড়া গ্রামে খাজামুদ্দিন তাঁর স্ত্রী শাহিদা বেগম রাতের খাবার খেয়ে শুয়ে পড়েন। রাত ৯টার দিকে একই উপজেলার মালিপাড়া গ্রামের মৃত জসিম উদ্দিনের ছেলে সাদ্দাম হোসেন জোর করে বাড়িতে প্রবেশের চেষ্টা করে। এসময় বাড়ির কাজের লোক মন্তাজ তাকে বাড়িতে প্রবেশ করতে বাঁধা দিলে তাকে ছুরিকাঘাত করে বিমাতা ভাই খাজামুদ্দিনের ঘরে প্রবেশ করে। এক পর্যায়ে খাজামুদ্দিনের স্ত্রী শাহিদা বেগমকেও ছুরিকাঘাত করে খাজামুদ্দিনকে ছুরি দিয়ে গলা কেটে হত্যা করে পালিয়ে যায়। ওই ঘটনায় নিহতের ছেলে আলম হোসেন বাদী হয়ে পরের দিন ১২ নভেম্বর ক্ষেতলাল থানায় মামলা করেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা (তৎকালীন) আলমগীর হোসেন ২০২০ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারী সাদ্দাম হোসেনের নাম উল্লেখ করে আদালতে অভিযোগ পত্র দাখিল করেন। মামলার দীর্ঘ শুনানী শেষে ১৫জন স্বাক্ষীর সাক্ষ্য শেষে আদালতে এ রায় দেন।

মামলার রাষ্ট্র পক্ষে আইনজীবী ছিলেন এ্যাড. নৃপেন্দ্রনাথ মন্ডল পিপি। আর আসামী পক্ষে আইনজীবী ছিলেন এ্যাড. মোস্তাফিজুর রহমান।

Tag :
সর্বাধিক পঠিত

https://dainiksurjodoy.com/wp-content/uploads/2023/12/Green-White-Modern-Pastel-Travel-Agency-Discount-Video5-2.gif

কারাগার থেকে পালানো দুই নারী জঙ্গি গ্রেপ্তার

জয়পুরহাটে গ্রাম্য কবিরাজকে হত্যার দায়ে সৎ ভাইয়ের মৃত্যদন্ড

Update Time : ০৪:১০:১৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুলাই ২০২৩

মোফাজ্জল হোসেন, জয়পুরহাট প্রতিনিধি : জয়পুরহাটের ক্ষেতলালে পুর্ব শত্রæতার জের ধরে খাজামুদ্দিন (৮৩) নামে এক কবিরাজকে গলা কেটে হত্যার দায়ে বিমাতা ভাই সাদ্দাম হোসেনকে (৩২) মৃত্যুদন্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত।

২৩ জুলাই রোববার দুপুরে জয়পুরহাট জেলা ও দায়রা জজ আদালতের সিনয়র দায়রা জজ নুর হোসেন এ রায় দেন। দন্ডপ্রাপ্ত সাদ্দাম হোসেন (৩২) জেলার ক্ষেতলাল উপজেলার মালিপাড়া গ্রামের বাসিন্দা মৃত জসিম উদ্দিনের ছেলে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জয়পুরহাট আদালতের সরকারি কৌসলি এ্যাড. নৃপেন্দ্রনাথ মন্ডল। মামলা সুত্রে

জানা যায়, ২০১৯ সালের ১১ নভেম্বর রাত সাড়ে আটটার দিকে জয়পুরহাটের ক্ষেতলাল উপজেলার দাশড়া ফকিড় পাড়া গ্রামে খাজামুদ্দিন তাঁর স্ত্রী শাহিদা বেগম রাতের খাবার খেয়ে শুয়ে পড়েন। রাত ৯টার দিকে একই উপজেলার মালিপাড়া গ্রামের মৃত জসিম উদ্দিনের ছেলে সাদ্দাম হোসেন জোর করে বাড়িতে প্রবেশের চেষ্টা করে। এসময় বাড়ির কাজের লোক মন্তাজ তাকে বাড়িতে প্রবেশ করতে বাঁধা দিলে তাকে ছুরিকাঘাত করে বিমাতা ভাই খাজামুদ্দিনের ঘরে প্রবেশ করে। এক পর্যায়ে খাজামুদ্দিনের স্ত্রী শাহিদা বেগমকেও ছুরিকাঘাত করে খাজামুদ্দিনকে ছুরি দিয়ে গলা কেটে হত্যা করে পালিয়ে যায়। ওই ঘটনায় নিহতের ছেলে আলম হোসেন বাদী হয়ে পরের দিন ১২ নভেম্বর ক্ষেতলাল থানায় মামলা করেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা (তৎকালীন) আলমগীর হোসেন ২০২০ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারী সাদ্দাম হোসেনের নাম উল্লেখ করে আদালতে অভিযোগ পত্র দাখিল করেন। মামলার দীর্ঘ শুনানী শেষে ১৫জন স্বাক্ষীর সাক্ষ্য শেষে আদালতে এ রায় দেন।

মামলার রাষ্ট্র পক্ষে আইনজীবী ছিলেন এ্যাড. নৃপেন্দ্রনাথ মন্ডল পিপি। আর আসামী পক্ষে আইনজীবী ছিলেন এ্যাড. মোস্তাফিজুর রহমান।