Dhaka ১১:৪৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ৩০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

প্রতারণার অভিযোগ থেকে বাঁচতে দুবাইয়ে আবছারের সংবাদ সম্মেলন

  • Reporter Name
  • Update Time : ০৫:০৬:১৪ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৮ মার্চ ২০২৪
  • 15

সূর্যোদয় রিপোর্ট: প্রবাসীদের জীবনে একটি অভিশাপের নাম প্রতারণা। কোনো না কোনোভাবে প্রতারিত হয়নি সংযুক্ত আরব আমিরাতে অবস্থানরত এমন প্রবাসী খুঁজে পাওয়া কঠিন। প্রতারণার অভিনব ফাঁদ পেতে লাখ লাখ দেরহাম হাতিয়ে নিচ্ছে দুবাইয়ে অবস্থানরত বাংলাদেশের একটি প্রতারক চক্র। তারা প্রথমে কোনো বাংলাদেশিকে টার্গেট করে সম্পর্ক স্থাপন করে। পরে বিশাল অঙ্কের টাকা ব্যবসায় বিনিয়োগের প্রস্তাব দেয় এই প্রতারক চক্রের সদস্যরা। আর সেই প্রস্তাবে রাজি হলে প্রাথমিকভাবে অল্প কিছু বিনিয়োগ করতে হবে বলে জানায় তারা। সেই টাকা তাদের দিতেই প্রতারণার ফাঁদে ফেঁসে যান টার্গেট করা ব্যক্তিটি। এভাবে দিনের পর দিন প্রবাসে মানুষকে ঠকানোর ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশের একটি প্রতারক চক্র।

সম্পতি ব্যবসায়িক অংশীদার বানানোর লোভ দেখিয়ে ১ লাখ ১৩ হাজার দেরহাম আত্মসাৎ করে নিজেকে নির্দোষ দাবী করেন সংবাদ সম্মেলন করেছেন দোহাজারীর বাসিন্দা আবছার নামের এক প্রবাসী। অন্যের প্রতিষ্ঠানকে নিজের দেখিয়ে এক অসহায় প্রবাসী বাংলাদেশীর নিকট হতে ৩৯ হাজার দেরহামসহ মোট ১ লাখ ১৩ হাজার দেরহাম হাতিয়ে নেয় প্রবাসী আবছার। দীর্ঘ ১ বছর পরেও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানটি চালু না করে আবারো ভূক্তভোগীদের কাছ থেকে টাকা দাবী করে আসছে আবছার। সম্প্রতি নিজেকে নির্দোষ দাবী করে সংবাদ সম্মেলনে আবছার বলেন, তিনি দীর্ঘদিন যাবত দুবাই সবজী মার্কেটে ব্যবসা করে আসছে। খোজ নিয়ে জানা জানা গেছে, তিনি মাত্র ১ মাস যাবত সবর্জি মার্কেটে কাজ করছেন। এর আগে তিনি দুবাইয়ে সে ফ্যালকন গ্লোবাল জেনারেল ট্রেডিং এল এল সি কোম্পানীতে চাকুরি করলেও বিভিন্ন কারণে সে চাকুরিটি তাকে হারাতে হয় বলে জানিয়েছেন ওই কোম্পানীটির মালিক। এখানেও তিনি মিথ্যাচার করেছেন।

সে নিজেকে ১২টি প্রতিষ্ঠানের মালিক হিসেবে নিজেকে পরিচয় দিতেন। তার বিভিন্ন ব্যবসা রয়েছে বলে ভূয়া প্রচারণা চালাতো।

সূত্র জানায়, দুবাই প্রবাসী এই প্রতারক আবছারের বাড়ী চট্টগ্রামের দোহাজারী এলাকায়। তিনি দোহাজারী পৌরসভার উত্তর দিয়াকুল এলাকার মোহাম্মদ ইসহাক মিয়ার সন্তান।

Tag :
সর্বাধিক পঠিত

https://dainiksurjodoy.com/wp-content/uploads/2023/12/Green-White-Modern-Pastel-Travel-Agency-Discount-Video5-2.gif

চীন বাংলাদেশকে দুই বিলিয়ন মার্কিন ডলার অর্থ প্রদানে সম্মত হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী

প্রতারণার অভিযোগ থেকে বাঁচতে দুবাইয়ে আবছারের সংবাদ সম্মেলন

Update Time : ০৫:০৬:১৪ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৮ মার্চ ২০২৪

সূর্যোদয় রিপোর্ট: প্রবাসীদের জীবনে একটি অভিশাপের নাম প্রতারণা। কোনো না কোনোভাবে প্রতারিত হয়নি সংযুক্ত আরব আমিরাতে অবস্থানরত এমন প্রবাসী খুঁজে পাওয়া কঠিন। প্রতারণার অভিনব ফাঁদ পেতে লাখ লাখ দেরহাম হাতিয়ে নিচ্ছে দুবাইয়ে অবস্থানরত বাংলাদেশের একটি প্রতারক চক্র। তারা প্রথমে কোনো বাংলাদেশিকে টার্গেট করে সম্পর্ক স্থাপন করে। পরে বিশাল অঙ্কের টাকা ব্যবসায় বিনিয়োগের প্রস্তাব দেয় এই প্রতারক চক্রের সদস্যরা। আর সেই প্রস্তাবে রাজি হলে প্রাথমিকভাবে অল্প কিছু বিনিয়োগ করতে হবে বলে জানায় তারা। সেই টাকা তাদের দিতেই প্রতারণার ফাঁদে ফেঁসে যান টার্গেট করা ব্যক্তিটি। এভাবে দিনের পর দিন প্রবাসে মানুষকে ঠকানোর ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশের একটি প্রতারক চক্র।

সম্পতি ব্যবসায়িক অংশীদার বানানোর লোভ দেখিয়ে ১ লাখ ১৩ হাজার দেরহাম আত্মসাৎ করে নিজেকে নির্দোষ দাবী করেন সংবাদ সম্মেলন করেছেন দোহাজারীর বাসিন্দা আবছার নামের এক প্রবাসী। অন্যের প্রতিষ্ঠানকে নিজের দেখিয়ে এক অসহায় প্রবাসী বাংলাদেশীর নিকট হতে ৩৯ হাজার দেরহামসহ মোট ১ লাখ ১৩ হাজার দেরহাম হাতিয়ে নেয় প্রবাসী আবছার। দীর্ঘ ১ বছর পরেও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানটি চালু না করে আবারো ভূক্তভোগীদের কাছ থেকে টাকা দাবী করে আসছে আবছার। সম্প্রতি নিজেকে নির্দোষ দাবী করে সংবাদ সম্মেলনে আবছার বলেন, তিনি দীর্ঘদিন যাবত দুবাই সবজী মার্কেটে ব্যবসা করে আসছে। খোজ নিয়ে জানা জানা গেছে, তিনি মাত্র ১ মাস যাবত সবর্জি মার্কেটে কাজ করছেন। এর আগে তিনি দুবাইয়ে সে ফ্যালকন গ্লোবাল জেনারেল ট্রেডিং এল এল সি কোম্পানীতে চাকুরি করলেও বিভিন্ন কারণে সে চাকুরিটি তাকে হারাতে হয় বলে জানিয়েছেন ওই কোম্পানীটির মালিক। এখানেও তিনি মিথ্যাচার করেছেন।

সে নিজেকে ১২টি প্রতিষ্ঠানের মালিক হিসেবে নিজেকে পরিচয় দিতেন। তার বিভিন্ন ব্যবসা রয়েছে বলে ভূয়া প্রচারণা চালাতো।

সূত্র জানায়, দুবাই প্রবাসী এই প্রতারক আবছারের বাড়ী চট্টগ্রামের দোহাজারী এলাকায়। তিনি দোহাজারী পৌরসভার উত্তর দিয়াকুল এলাকার মোহাম্মদ ইসহাক মিয়ার সন্তান।