Dhaka ০৭:৩২ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চট্টগ্রামে গণধর্ষণে তরুণীর মৃত্যুর ঘটনায় দুজনকে গ্রেপ্তার

  • Reporter Name
  • Update Time : ০৪:৪৮:২৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৭ মার্চ ২০২৪
  • 18

চট্টগ্রাম প্রতিবেদক: চট্টগ্রামে গণধর্ষণের পর বিবি রহিমা আক্তার নামের এক তরুণীর মৃত্যুর ঘটনায় দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ৭ মার্চ বৃহস্পতিবার বিষয়টি নিশ্চিত করেন হালিশহর থানার ওসি মো. কায়সার হামিদ। গ্রেপ্তাররা হলেন চট্টগ্রাম জেলার পটিয়া থানা এলাকার বাসিন্দা ওবায়দুল হক ওরফে ওবায়দুল করিম এবং সিএমপির পাঁচলাইশ থানা এলাকার বাসিন্দা মো. সেলিম।

জানা গেছে, গত ২৬ জানুয়ারি এক যুবতীকে হালিশহর থেকে পাঁচলাইশের কসমোপলিটন আবাসিক এলাকায় নিয়ে যায় সেলিম। সেখানে গণধর্ষণের শিকার হন ওই তরুণী। এরপর ঘটনাটি উল্লেখ ভুক্তভোগী বিবি রহিমা আক্তারের ভাই বাদী হয়ে এজাহার দায়ের করে। পরে তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় মামলার পলাতক আসামি ওবায়দুল হক ওরফে ওবায়দুল করিমকে চট্টগ্রাম জেলার পটিয়া থানাধীন বড়লিয়া এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পরে তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে সিএমপির পাঁচলাইশ থানার ষোলশহর এলাকায় অভিযান চালিয়ে মামলার সঙ্গে জড়িত অপর আসামি মো. সেলিমকে গ্রেপ্তার করা হয়।

হালিশহর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. কায়সার হামিদ বলেন, আসামি করিম ওই ভিকটিমকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে আরেক আসামি সেলিমের কসমোপলিটন আবাসিক এলাকায় নিয়ে ধর্ষণ করে তাকে। তিনি বলেন, তাকে খুবই অমানবিক নির্যাতন করে তারা। একপর্যায়ে ভিকটিম মৃত্যু কোলে ঢলে পড়ে।

Tag :
সর্বাধিক পঠিত

https://dainiksurjodoy.com/wp-content/uploads/2023/12/Green-White-Modern-Pastel-Travel-Agency-Discount-Video5-2.gif

ঢাবিতে পুলিশের ধাওয়ায় ছত্রভঙ্গ আন্দোলনকারীরা

চট্টগ্রামে গণধর্ষণে তরুণীর মৃত্যুর ঘটনায় দুজনকে গ্রেপ্তার

Update Time : ০৪:৪৮:২৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৭ মার্চ ২০২৪

চট্টগ্রাম প্রতিবেদক: চট্টগ্রামে গণধর্ষণের পর বিবি রহিমা আক্তার নামের এক তরুণীর মৃত্যুর ঘটনায় দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ৭ মার্চ বৃহস্পতিবার বিষয়টি নিশ্চিত করেন হালিশহর থানার ওসি মো. কায়সার হামিদ। গ্রেপ্তাররা হলেন চট্টগ্রাম জেলার পটিয়া থানা এলাকার বাসিন্দা ওবায়দুল হক ওরফে ওবায়দুল করিম এবং সিএমপির পাঁচলাইশ থানা এলাকার বাসিন্দা মো. সেলিম।

জানা গেছে, গত ২৬ জানুয়ারি এক যুবতীকে হালিশহর থেকে পাঁচলাইশের কসমোপলিটন আবাসিক এলাকায় নিয়ে যায় সেলিম। সেখানে গণধর্ষণের শিকার হন ওই তরুণী। এরপর ঘটনাটি উল্লেখ ভুক্তভোগী বিবি রহিমা আক্তারের ভাই বাদী হয়ে এজাহার দায়ের করে। পরে তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় মামলার পলাতক আসামি ওবায়দুল হক ওরফে ওবায়দুল করিমকে চট্টগ্রাম জেলার পটিয়া থানাধীন বড়লিয়া এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পরে তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে সিএমপির পাঁচলাইশ থানার ষোলশহর এলাকায় অভিযান চালিয়ে মামলার সঙ্গে জড়িত অপর আসামি মো. সেলিমকে গ্রেপ্তার করা হয়।

হালিশহর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. কায়সার হামিদ বলেন, আসামি করিম ওই ভিকটিমকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে আরেক আসামি সেলিমের কসমোপলিটন আবাসিক এলাকায় নিয়ে ধর্ষণ করে তাকে। তিনি বলেন, তাকে খুবই অমানবিক নির্যাতন করে তারা। একপর্যায়ে ভিকটিম মৃত্যু কোলে ঢলে পড়ে।