Dhaka ০২:৫১ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

তত্ত্বাবধায়ক সরকার নিয়ে কোনো আগ্রহ প্রকাশ করেননি ইইউ অনুসন্ধানী দল

  • Reporter Name
  • Update Time : ১১:১৪:২২ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১১ জুলাই ২০২৩
  • 7

সূর্যোদয় প্রতিবেদক : আগামী দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে সব রাজনৈতিক দল অংশগ্রহণ করবে বলে প্রত্যাশা ব্যক্ত করেছে ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) জাতীয় নির্বাচনের পরিবেশ মূল্যায়ন করতে আসা ৬ সদস্যের নির্বাচনী অনুসন্ধানী দল। ১১ জুলাই মঙ্গলবার গুলশানে ইলেকশন মনিটরিং ফোরাম (ইএমএফ)-এর সঙ্গে বৈঠকে তারা এ প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন। বৈঠক শেষে ইলেকশন মনিটরিং ফোরামের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মোহাম্মদ আবেদ আলী সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, উনারা গত নির্বাচন নিয়ে কথা বলেছেন। আগামী নির্বাচন কেমন হবে সেটি জানতে চয়েছেন। যেহেতু বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ পর্যবেক্ষক সংস্থা হিসেবে আমরা কাজ করছি, তারা আমাদের বাস্তব অভিজ্ঞতা জানতে চেয়েছেন। আমরা উনাদের সামনে সম্প্রতি পাঁচ সিটি করপোরেশন নির্বাচনের যে পরিস্থিতি দেখেছি, সেটি তুলে ধরেছি। নির্বাচন কমিশনের সক্ষমতা, সরকারের যে সহযোগিতা সেটি উনাদের সামনে আমরা তুলে ধরেছি। উনারা আমাদের কথা নোট করেছেন। বলেছেন, আগামী নির্বাচনে ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রতিনিধি দল আসবে। পাশাপাশি উনারা প্রত্যাশা করেন, বাংলাদেশের সব কয়টি রাজনৈতিক দল আগামী দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে।

আবেদ আলী বলেন, তারা শুধু ২০১৮ নয়, ১৯৯৬, ২০০১, ২০০৮, ২০১৪ সবগুলো নির্বাচন নিয়ে কথা বলেছেন। উনাদের মধ্যে একজন প্রতিনিধিও আছেন যিনি আগে নির্বাচন পর্যবেক্ষণ করেছেন।
তত্ত্বাবধায়ক ইস্যুতে কোনো কথা বলেছেন কি না, জানতে চাইলে তিনি বলেন, সংবিধানে নেই এমন কোনো কথা বলেননি। তত্ত্বাবধায়ক বিষয়ে কিছু তারা জানতে চাননি। এটার বিষয়ে উনারা কোনো আগ্রহ প্রকাশ করেননি। এসময় ফোরামের উপদেষ্টা ও সাবেক নির্বাচন কমিশনার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল অব. শাহাদাত হোসেন চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।

Tag :
সর্বাধিক পঠিত

তত্ত্বাবধায়ক সরকার নিয়ে কোনো আগ্রহ প্রকাশ করেননি ইইউ অনুসন্ধানী দল

Update Time : ১১:১৪:২২ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১১ জুলাই ২০২৩

সূর্যোদয় প্রতিবেদক : আগামী দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে সব রাজনৈতিক দল অংশগ্রহণ করবে বলে প্রত্যাশা ব্যক্ত করেছে ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) জাতীয় নির্বাচনের পরিবেশ মূল্যায়ন করতে আসা ৬ সদস্যের নির্বাচনী অনুসন্ধানী দল। ১১ জুলাই মঙ্গলবার গুলশানে ইলেকশন মনিটরিং ফোরাম (ইএমএফ)-এর সঙ্গে বৈঠকে তারা এ প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন। বৈঠক শেষে ইলেকশন মনিটরিং ফোরামের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মোহাম্মদ আবেদ আলী সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, উনারা গত নির্বাচন নিয়ে কথা বলেছেন। আগামী নির্বাচন কেমন হবে সেটি জানতে চয়েছেন। যেহেতু বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ পর্যবেক্ষক সংস্থা হিসেবে আমরা কাজ করছি, তারা আমাদের বাস্তব অভিজ্ঞতা জানতে চেয়েছেন। আমরা উনাদের সামনে সম্প্রতি পাঁচ সিটি করপোরেশন নির্বাচনের যে পরিস্থিতি দেখেছি, সেটি তুলে ধরেছি। নির্বাচন কমিশনের সক্ষমতা, সরকারের যে সহযোগিতা সেটি উনাদের সামনে আমরা তুলে ধরেছি। উনারা আমাদের কথা নোট করেছেন। বলেছেন, আগামী নির্বাচনে ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রতিনিধি দল আসবে। পাশাপাশি উনারা প্রত্যাশা করেন, বাংলাদেশের সব কয়টি রাজনৈতিক দল আগামী দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে।

আবেদ আলী বলেন, তারা শুধু ২০১৮ নয়, ১৯৯৬, ২০০১, ২০০৮, ২০১৪ সবগুলো নির্বাচন নিয়ে কথা বলেছেন। উনাদের মধ্যে একজন প্রতিনিধিও আছেন যিনি আগে নির্বাচন পর্যবেক্ষণ করেছেন।
তত্ত্বাবধায়ক ইস্যুতে কোনো কথা বলেছেন কি না, জানতে চাইলে তিনি বলেন, সংবিধানে নেই এমন কোনো কথা বলেননি। তত্ত্বাবধায়ক বিষয়ে কিছু তারা জানতে চাননি। এটার বিষয়ে উনারা কোনো আগ্রহ প্রকাশ করেননি। এসময় ফোরামের উপদেষ্টা ও সাবেক নির্বাচন কমিশনার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল অব. শাহাদাত হোসেন চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।