Dhaka ০৪:৪৮ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

হাতিয়ায় ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের প্রভাবে নিম্মাঞ্চল প্লাবিত

  • Reporter Name
  • Update Time : ০৪:৩১:৩৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ মে ২০২১
  • 6438

সালমা হক রিয়া ,নোয়াখালী:
নোয়াখালীর দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ায় ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের প্রভাবে অস্বাভাবিক জোয়ারে নিম্মাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। সে সাথে নিঝুমদ্বীপ ইউনিয়নের চারটি গ্রাম সম্পূর্ণভাবে পানিতে তলিয়ে যায়। মঙ্গলবার (২৫ মে) সকাল থেকে শুরু হওয়া জোয়ারে এসব এলাকা প্লাবিত হয়।

ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে হাতিয়ার চারপাশে নদীতে স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়ে ৩-৪ফুট পানি বৃদ্ধি পেয়েছে। নিঝুমদ্বীপে বেড়িবাঁধ না থাকায় অস্বাভাবিক জোয়ারে তলিয়ে গেছে ৪ গ্রাম। এর মধ্যে মোল্লা গ্রাম, মদিনা গ্রাম, বান্দাখালী গ্রাম ও মুন্সি গ্রাম ৩-৪ফুট পানির নিচে তুলিয়ে গেছে বলে জানান নিঝুমদ্বীপ ২নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য কেপায়েত উদ্দিন।

হঠাৎ প্লাবিত হওয়া এসব এলাকার মানুষের দুর্ভোগ চরমে উঠেছে। জোয়ারের পানিতে ভেসে গেছে পুকুরের মাছ, গো খাদ্য। অনেক এলাকায় মানুষের কাচা ঘরবাড়িও ভেসে যেতে দেখা যায়।

হাতিয়া উপজেলা সিপিপি কর্মকর্তা বদিউজ্জামান বলেন, ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের প্রভাব ও পূর্ণিমার প্রভাব এক হয়ে জোয়ারের পানি বৃদ্ধি পেয়েছে। রাতের জোয়ারে পানি আরও বৃদ্ধি পাওয়ার সম্ভাবনা আছে। আমাদের ১৮১ টি সাইক্লোন সেল্টার প্রস্তুত রাখা হয়েছে, দুর্গত মানুষদেকে দ্রুত সেল্টারে নিয়ে আসা হবে।

Tag :
সর্বাধিক পঠিত

https://dainiksurjodoy.com/wp-content/uploads/2023/12/Green-White-Modern-Pastel-Travel-Agency-Discount-Video5-2.gif

দাঁতমারা সেলফি রোড়ে গাছের সঙ্গে মোটরসাইকেলের ধাক্কায় নিহত ১

হাতিয়ায় ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের প্রভাবে নিম্মাঞ্চল প্লাবিত

Update Time : ০৪:৩১:৩৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ মে ২০২১

সালমা হক রিয়া ,নোয়াখালী:
নোয়াখালীর দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ায় ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের প্রভাবে অস্বাভাবিক জোয়ারে নিম্মাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। সে সাথে নিঝুমদ্বীপ ইউনিয়নের চারটি গ্রাম সম্পূর্ণভাবে পানিতে তলিয়ে যায়। মঙ্গলবার (২৫ মে) সকাল থেকে শুরু হওয়া জোয়ারে এসব এলাকা প্লাবিত হয়।

ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে হাতিয়ার চারপাশে নদীতে স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়ে ৩-৪ফুট পানি বৃদ্ধি পেয়েছে। নিঝুমদ্বীপে বেড়িবাঁধ না থাকায় অস্বাভাবিক জোয়ারে তলিয়ে গেছে ৪ গ্রাম। এর মধ্যে মোল্লা গ্রাম, মদিনা গ্রাম, বান্দাখালী গ্রাম ও মুন্সি গ্রাম ৩-৪ফুট পানির নিচে তুলিয়ে গেছে বলে জানান নিঝুমদ্বীপ ২নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য কেপায়েত উদ্দিন।

হঠাৎ প্লাবিত হওয়া এসব এলাকার মানুষের দুর্ভোগ চরমে উঠেছে। জোয়ারের পানিতে ভেসে গেছে পুকুরের মাছ, গো খাদ্য। অনেক এলাকায় মানুষের কাচা ঘরবাড়িও ভেসে যেতে দেখা যায়।

হাতিয়া উপজেলা সিপিপি কর্মকর্তা বদিউজ্জামান বলেন, ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের প্রভাব ও পূর্ণিমার প্রভাব এক হয়ে জোয়ারের পানি বৃদ্ধি পেয়েছে। রাতের জোয়ারে পানি আরও বৃদ্ধি পাওয়ার সম্ভাবনা আছে। আমাদের ১৮১ টি সাইক্লোন সেল্টার প্রস্তুত রাখা হয়েছে, দুর্গত মানুষদেকে দ্রুত সেল্টারে নিয়ে আসা হবে।