Dhaka ০৯:১২ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

দিনাজপুরের খানসামার পাকেরহাটে জমে উঠেছে কোরবানির হাট, দাম চড়া

  • Reporter Name
  • Update Time : ১১:৩৫:৪০ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৪ জুন ২০২৩
  • 11

নুর-আমিন, খানসামা (দিনাজপুর) প্রতিনিধি : প্রতিবছর কোরবানির ঈদে দেশীয় গরুর কদর একটু বেশি থাকে। যার ফলে পশুরহাটে গরুর দামও একটু বেশি থাকে। ২৪ জুন শনিবার দিনাজপুরের খানসামা উপজেলার পাকের হাট বাজার ছিলো কোরবানি গরুর সাপ্তাহিক হাটবার। এদিন বেলা ১২টায় সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, আস্তে আস্তে জমে উঠছে গরুর হাট।

এই হাটে পার্শ্ববর্তী উপজেলা নীলফামারী, সৈয়দপুর, বীরগঞ্জ, চিরিরবন্দর, কাহারোল এলাকা থেকে বিভিন্ন জাতের গরু আনা হয় বিক্রির জন্য। এসব গরু ইঞ্জিন চালিত টেম্পু,পিকআপে পশু নিয়ে আসছে বিভিন্ন বেপারি ও গরু খামারি। দামও হাঁকা হচ্ছে অনেক বেশি।

কাহারোল থেকে গরু বিক্রয় করতে এসেছেন গরু ব্যবসায়ী রাজু ও রমজান মিয়া। তারা জানান, সারা বছর যাবৎ নদীর তীরে গরু ছেড়ে দিয়ে লালন-পালন করেন তারা। পশুরা নদীর পাড়ে প্রাকৃতিক ভাবে জন্মনো ঘাস, লতাপাতা খেয়ে হৃষ্টপুষ্ট হয়ে থাকে। এদের কোন প্রকার স্বাস্থ্যের জন্য বাহিরের ইনজেকশন প্রয়োগ করা হয়না। তাই তীরের গরুর দাম একটু বেশি। তারা আরো জানান, দাম বেশী হলেও বর্তমানে দেশের বিভিন্ন জেলায় যাচ্ছে এসব গরু।

পাকেরহাট বাজার হতে গরু কিনতে আসা গাছবাড়ি বাসিন্দা আবু তাহের, নুরুল হোসেন সহ বেশ কয়েকজন ক্রেতা বলেন, এই বাজারে যেসব গরু আনা হয় সেগুলি অনেক ভালো। এসব গরু প্রাকৃতিক ভাবে জন্মানো ঘাস ও লতাপাতা ছাড়া কিছুই খায়না। তাই গরুর প্রতি ক্রেতাদের চাহিদা অনেকটা বেশি। তবে কিছু ক্রেতা হতাশ হয়ে বলেন, বাজারে গরুর দাম অনেক চড়া তাই অনেকেই গরু না কিনে চলে যাচ্ছে। দাম একটু কমলে গরু বিক্রয় আরো বাড়বে বলে তারা জানান।
এদিকে গরু ব্যবসায়ীরা জানান, আজ শনিবার থেকে জমে উঠছে কোরবানী পশুর হাট। ইতিমধ্যে হাটে লাখ লাখ টাকার গরু ক্রয়-বিক্রয় করা হয়েছে। তবে দাম কিছুটা বেশি হলেও ধারনা করা হচ্ছে ঈদের ৩-৪ দিন আগে দাম কিছুটা শিথিল হতে পারে। এছাড়া শনিবার থেকে পাকেরহাটে শুরু হওয়া গরুর হাট কোরবানী ঈদের আগ পর্যন্ত চলবে বলে স্থানীয় ব্যবসায়ীরা জানান।

Tag :
সর্বাধিক পঠিত

https://dainiksurjodoy.com/wp-content/uploads/2023/12/Green-White-Modern-Pastel-Travel-Agency-Discount-Video5-2.gif

ঈদের জামাতের জন্য প্রস্তুত কিশোরগঞ্জের ঐতিহ্যবাহী শোলাকিয়া

দিনাজপুরের খানসামার পাকেরহাটে জমে উঠেছে কোরবানির হাট, দাম চড়া

Update Time : ১১:৩৫:৪০ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৪ জুন ২০২৩

নুর-আমিন, খানসামা (দিনাজপুর) প্রতিনিধি : প্রতিবছর কোরবানির ঈদে দেশীয় গরুর কদর একটু বেশি থাকে। যার ফলে পশুরহাটে গরুর দামও একটু বেশি থাকে। ২৪ জুন শনিবার দিনাজপুরের খানসামা উপজেলার পাকের হাট বাজার ছিলো কোরবানি গরুর সাপ্তাহিক হাটবার। এদিন বেলা ১২টায় সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, আস্তে আস্তে জমে উঠছে গরুর হাট।

এই হাটে পার্শ্ববর্তী উপজেলা নীলফামারী, সৈয়দপুর, বীরগঞ্জ, চিরিরবন্দর, কাহারোল এলাকা থেকে বিভিন্ন জাতের গরু আনা হয় বিক্রির জন্য। এসব গরু ইঞ্জিন চালিত টেম্পু,পিকআপে পশু নিয়ে আসছে বিভিন্ন বেপারি ও গরু খামারি। দামও হাঁকা হচ্ছে অনেক বেশি।

কাহারোল থেকে গরু বিক্রয় করতে এসেছেন গরু ব্যবসায়ী রাজু ও রমজান মিয়া। তারা জানান, সারা বছর যাবৎ নদীর তীরে গরু ছেড়ে দিয়ে লালন-পালন করেন তারা। পশুরা নদীর পাড়ে প্রাকৃতিক ভাবে জন্মনো ঘাস, লতাপাতা খেয়ে হৃষ্টপুষ্ট হয়ে থাকে। এদের কোন প্রকার স্বাস্থ্যের জন্য বাহিরের ইনজেকশন প্রয়োগ করা হয়না। তাই তীরের গরুর দাম একটু বেশি। তারা আরো জানান, দাম বেশী হলেও বর্তমানে দেশের বিভিন্ন জেলায় যাচ্ছে এসব গরু।

পাকেরহাট বাজার হতে গরু কিনতে আসা গাছবাড়ি বাসিন্দা আবু তাহের, নুরুল হোসেন সহ বেশ কয়েকজন ক্রেতা বলেন, এই বাজারে যেসব গরু আনা হয় সেগুলি অনেক ভালো। এসব গরু প্রাকৃতিক ভাবে জন্মানো ঘাস ও লতাপাতা ছাড়া কিছুই খায়না। তাই গরুর প্রতি ক্রেতাদের চাহিদা অনেকটা বেশি। তবে কিছু ক্রেতা হতাশ হয়ে বলেন, বাজারে গরুর দাম অনেক চড়া তাই অনেকেই গরু না কিনে চলে যাচ্ছে। দাম একটু কমলে গরু বিক্রয় আরো বাড়বে বলে তারা জানান।
এদিকে গরু ব্যবসায়ীরা জানান, আজ শনিবার থেকে জমে উঠছে কোরবানী পশুর হাট। ইতিমধ্যে হাটে লাখ লাখ টাকার গরু ক্রয়-বিক্রয় করা হয়েছে। তবে দাম কিছুটা বেশি হলেও ধারনা করা হচ্ছে ঈদের ৩-৪ দিন আগে দাম কিছুটা শিথিল হতে পারে। এছাড়া শনিবার থেকে পাকেরহাটে শুরু হওয়া গরুর হাট কোরবানী ঈদের আগ পর্যন্ত চলবে বলে স্থানীয় ব্যবসায়ীরা জানান।