Dhaka ০৫:২৪ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আশুলিয়ায় ছুরিকাঘাতে স্ত্রীর মৃত্যু, ঘাতক স্বামী গ্রেফতার

  • Reporter Name
  • Update Time : ০৩:২০:০৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ২১ জুন ২০২৩
  • 14

মোঃ বাবুল শেখ, স্টাফ রিপোর্টার : আশুলিয়ায় সাবেক স্বামীর ছুরিকাঘাতের ছয়দিন পর ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় স্ত্রী রোকসানা বেগম (৩৪) মারা যায় । এ ঘটনায় নিহতের সাবেক স্বামী লিচু মিয়া (৪০) কে গ্রেফতার করে পুলিশ। গতকাল ২০ জুন মঙ্গলবার বিকেলে দৈনিক সূর্যোদয়কে বিষয়টি নিশ্চিত করেন আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো: জাহাঙ্গীর আলম।
এরআগে গত ১৯ জুন সোমবার দিবাগত রাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় রোকসানা।

গত ১৪ জুন সকালে আশুলিয়ার জিরানী পুকুরপাড় এলাকায় প্রকাশ্যে রোকসানাকে তার সাবেক স্বামী ছুরিকাঘাত করে। পরে ঘটনায় নিহতের বোন জামাই আফজাল মিয়া বাদী হয়ে আশুলিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করে মামলা নং-৫১। নিহত রোকসানা বেগম সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার আছিন্তপুর গ্রামের রেনু মিয়ার মেয়ে। সে আশুলিয়ার জিরানী পুকুরপাড় এলাকার হাজী সাহেব আলীর ভাড়া বাসায় থেকে স্থানীয় অকোটেক্স কারখানায় চাকুরী করে আসছিলো। নিহতের সাবেক স্বামী লিচু মিয়া কিশোরগঞ্জের মিঠামইন থানাধীন আগলাহাটি (ইসলামপুর) এলাকার বাচ্চু মিয়ার ছেলে। সে আশুলিয়ার জিরানী বাজার পুকুরপাড় এলাকার মহসিনের বাড়িতে প্রথম স্ত্রী নিয়ে ভাড়া থাকতো। রোকসানা তার দ্বিতীয় স্ত্রী ছিল। গেল দুই মাস আগে তাদের মধ্যে ডিভোর্স হয়।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, গেল ১৪জুন সকালে প্রতিদিনের মত ভাড়া বাসা থেকে কারখানার উদ্দেশ্যে বের হন রোকসানা। পথে আবুল কালামের বাড়ির সামনের রাস্তায় পৌছলে পূর্ব থেকে উৎ পেতে থাকা রোকসানার সাবেক স্বামী লিচু মিয়া প্রকাশ্যে রোকসানাকে ছুরিকাঘাত করে দ্রুত পালিয়ে যায়।পরে রোকসানাকে উদ্ধার করে স্থানীয়রা তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় ছয়দিন পর মারা যায় তিনি।

এদিকে, ছুরিকাঘাতের পর লিচু মিয়া পালিয়ে গ্রামের বাড়ি কিশোরগঞ্জে চলে যায়। সেখান থেকে তাকে গ্রেফতার করে র‌্যাব। পরে তাকে আশুলিয়া থানায় হস্তান্তর করে।
এ বিষয়ে আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) জাহাঙ্গীর আলম বলেন, গত সোমবার রাতে ঢাকা মেডিকেলে মারা যান সেই নারী। তার স্বামীকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ ঢাকা মেডিকেল কলেজেই রাখা হয়েছে। এঘটনায় একটি মামলাও হয়েছে।

Tag :
সর্বাধিক পঠিত

https://dainiksurjodoy.com/wp-content/uploads/2023/12/Green-White-Modern-Pastel-Travel-Agency-Discount-Video5-2.gif

দাঁতমারা সেলফি রোড়ে গাছের সঙ্গে মোটরসাইকেলের ধাক্কায় নিহত ১

আশুলিয়ায় ছুরিকাঘাতে স্ত্রীর মৃত্যু, ঘাতক স্বামী গ্রেফতার

Update Time : ০৩:২০:০৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ২১ জুন ২০২৩

মোঃ বাবুল শেখ, স্টাফ রিপোর্টার : আশুলিয়ায় সাবেক স্বামীর ছুরিকাঘাতের ছয়দিন পর ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় স্ত্রী রোকসানা বেগম (৩৪) মারা যায় । এ ঘটনায় নিহতের সাবেক স্বামী লিচু মিয়া (৪০) কে গ্রেফতার করে পুলিশ। গতকাল ২০ জুন মঙ্গলবার বিকেলে দৈনিক সূর্যোদয়কে বিষয়টি নিশ্চিত করেন আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো: জাহাঙ্গীর আলম।
এরআগে গত ১৯ জুন সোমবার দিবাগত রাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় রোকসানা।

গত ১৪ জুন সকালে আশুলিয়ার জিরানী পুকুরপাড় এলাকায় প্রকাশ্যে রোকসানাকে তার সাবেক স্বামী ছুরিকাঘাত করে। পরে ঘটনায় নিহতের বোন জামাই আফজাল মিয়া বাদী হয়ে আশুলিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করে মামলা নং-৫১। নিহত রোকসানা বেগম সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার আছিন্তপুর গ্রামের রেনু মিয়ার মেয়ে। সে আশুলিয়ার জিরানী পুকুরপাড় এলাকার হাজী সাহেব আলীর ভাড়া বাসায় থেকে স্থানীয় অকোটেক্স কারখানায় চাকুরী করে আসছিলো। নিহতের সাবেক স্বামী লিচু মিয়া কিশোরগঞ্জের মিঠামইন থানাধীন আগলাহাটি (ইসলামপুর) এলাকার বাচ্চু মিয়ার ছেলে। সে আশুলিয়ার জিরানী বাজার পুকুরপাড় এলাকার মহসিনের বাড়িতে প্রথম স্ত্রী নিয়ে ভাড়া থাকতো। রোকসানা তার দ্বিতীয় স্ত্রী ছিল। গেল দুই মাস আগে তাদের মধ্যে ডিভোর্স হয়।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, গেল ১৪জুন সকালে প্রতিদিনের মত ভাড়া বাসা থেকে কারখানার উদ্দেশ্যে বের হন রোকসানা। পথে আবুল কালামের বাড়ির সামনের রাস্তায় পৌছলে পূর্ব থেকে উৎ পেতে থাকা রোকসানার সাবেক স্বামী লিচু মিয়া প্রকাশ্যে রোকসানাকে ছুরিকাঘাত করে দ্রুত পালিয়ে যায়।পরে রোকসানাকে উদ্ধার করে স্থানীয়রা তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় ছয়দিন পর মারা যায় তিনি।

এদিকে, ছুরিকাঘাতের পর লিচু মিয়া পালিয়ে গ্রামের বাড়ি কিশোরগঞ্জে চলে যায়। সেখান থেকে তাকে গ্রেফতার করে র‌্যাব। পরে তাকে আশুলিয়া থানায় হস্তান্তর করে।
এ বিষয়ে আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) জাহাঙ্গীর আলম বলেন, গত সোমবার রাতে ঢাকা মেডিকেলে মারা যান সেই নারী। তার স্বামীকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ ঢাকা মেডিকেল কলেজেই রাখা হয়েছে। এঘটনায় একটি মামলাও হয়েছে।