Dhaka ০৬:০৪ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রাজধানীতে বৃষ্টির কারণে এনে দিল শান্তির পরশ

  • Reporter Name
  • Update Time : ১২:৫৩:৪৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৭ এপ্রিল ২০২৩
  • 877

সূর্যোদয় প্রতিবেদক : তীব্র তাপদাহে জনজীবন যখন অতিষ্ঠ সেই সময় রাজধানীতে বৃষ্টির কারণে এনে দিল শান্তির পরশ। বৃহস্পতিবার ২৭ এপ্রিল সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত সূর্যের প্রখর তাপ ছিল। কিন্তু বিকেলেই ঝড়ের দেখা মেলে। ব্যাপক ধুলিঝড়ের সঙ্গে শুরু হয় বজ্রপাত। দমকা বাতাসের সময় পথচারীদের এদিক-ওদিক ছুটতে দেখা যায়। অনেকেই আশ্রয় নেন বিভিন্ন দোকান-ছাউনিতে। অন্ধকার নেমে আসায় সড়কে গাড়িগুলোকেও চলতে দেখা যায় হেডলাইট জ্বালিয়ে। আবহাওয়াবিদ সকালেই জানিয়েছিল রাজশাহী, রংপুর, ঢাকা, খুলনা, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা/ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি/বজ্রবৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। সেই সঙ্গে কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে শিলাবৃষ্টি হতে পারে। এছাড়া দেশের অন্যত্র অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারাদেশের আবহওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। সেই আভাসকে সত্যি করে দিয়েই নেমে এসেছে ঝড়-বৃষ্টি। বর্তমানে দেশের বিভিন্ন স্থানে এপ্রিলের দ্বিতীয় দফার তাপপ্রবাহ চলছে। এর আগে গত ১৪ এপ্রিল থেকে দেশের ওপর দিয়ে তাপপ্রবাহ শুরু হয়, যা ক্রমান্বয়ে বেড়ে গত নয় বছরের সর্বোচ্চ পর্যায়ে পৌঁছে। এরপর ১৮ এপ্রিল থেকে কমতে শুরু করে, ২৩ এপ্রিল এসে পুরোপুরি কেটে যায়।

Tag :
সর্বাধিক পঠিত

https://dainiksurjodoy.com/wp-content/uploads/2023/12/Green-White-Modern-Pastel-Travel-Agency-Discount-Video5-2.gif

ঈদের জামাতের জন্য প্রস্তুত কিশোরগঞ্জের ঐতিহ্যবাহী শোলাকিয়া

রাজধানীতে বৃষ্টির কারণে এনে দিল শান্তির পরশ

Update Time : ১২:৫৩:৪৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৭ এপ্রিল ২০২৩

সূর্যোদয় প্রতিবেদক : তীব্র তাপদাহে জনজীবন যখন অতিষ্ঠ সেই সময় রাজধানীতে বৃষ্টির কারণে এনে দিল শান্তির পরশ। বৃহস্পতিবার ২৭ এপ্রিল সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত সূর্যের প্রখর তাপ ছিল। কিন্তু বিকেলেই ঝড়ের দেখা মেলে। ব্যাপক ধুলিঝড়ের সঙ্গে শুরু হয় বজ্রপাত। দমকা বাতাসের সময় পথচারীদের এদিক-ওদিক ছুটতে দেখা যায়। অনেকেই আশ্রয় নেন বিভিন্ন দোকান-ছাউনিতে। অন্ধকার নেমে আসায় সড়কে গাড়িগুলোকেও চলতে দেখা যায় হেডলাইট জ্বালিয়ে। আবহাওয়াবিদ সকালেই জানিয়েছিল রাজশাহী, রংপুর, ঢাকা, খুলনা, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা/ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি/বজ্রবৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। সেই সঙ্গে কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে শিলাবৃষ্টি হতে পারে। এছাড়া দেশের অন্যত্র অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারাদেশের আবহওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। সেই আভাসকে সত্যি করে দিয়েই নেমে এসেছে ঝড়-বৃষ্টি। বর্তমানে দেশের বিভিন্ন স্থানে এপ্রিলের দ্বিতীয় দফার তাপপ্রবাহ চলছে। এর আগে গত ১৪ এপ্রিল থেকে দেশের ওপর দিয়ে তাপপ্রবাহ শুরু হয়, যা ক্রমান্বয়ে বেড়ে গত নয় বছরের সর্বোচ্চ পর্যায়ে পৌঁছে। এরপর ১৮ এপ্রিল থেকে কমতে শুরু করে, ২৩ এপ্রিল এসে পুরোপুরি কেটে যায়।