Dhaka ০১:২৮ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

লক্ষ্মীপুরের চন্দ্রগঞ্জে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে চেক ও ঢেউটিন বিতরণ

  • Reporter Name
  • Update Time : ০৪:২২:০২ অপরাহ্ন, সোমবার, ১২ এপ্রিল ২০২১
  • 497

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি :
লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার চন্দ্রগঞ্জে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে অনুদানের চেক ও ঢেউটিন বিতরণ করা হয়েছে। জেলা প্রশাসক আনোয়ার হোছাইন আকন্দ ক্ষতিগ্রস্ত ১২জন দোকানঘরের মালিক ও ১২জন ভাড়াটিয়া ব্যবসায়ীর মাঝে সোমবার বিকেলে (১২ এপ্রিল) এই অনুদান তুলে দেন।
এসময় উপস্থিত ছিলেন- সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মাসুম, জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক নুরুল ইসলাম পাটোয়ারী, সদর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোশারফ হোসেন, স্থানীয় চেয়ারম্যান মো. নুরুল আমিন, চন্দ্রগঞ্জ বাজার পরিচালনা কমিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আলী করিম ও সাধারণ সম্পাদক মাওলানা মো. আব্দুল কুদ্দুছ প্রমুখ।
সদর উপজেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের মাধ্যমে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে এসব অনুদান প্রদান করা হয়েছে। অনুদান প্রাপ্তদের মধ্যে ১২জন ঘরমালিককে ৬ হাজার টাকা করে মোট ৭২ হাজার টাকার চেক ও ২ বান্ডিল ঢেউটিন এবং ভাড়াটিয়া দোকান মালিকদের ১০ হাজার টাকা করে মোট ১ লাখ ২০ হাজার টাকার চেক প্রদান করা হয়।
এসময় জেলা প্রশাসক (ডিসি) আনোয়ার হোসেন আকন্দ বলেন- চন্দ্রগঞ্জে একটি ফায়ার সার্ভিস স্টেশন স্থাপনের জন্য সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে লিখিত প্রস্তাবনা পাঠিয়েছি। আশা করি অদূর ভবিষ্যতে এখানে একটি ফায়াস সার্ভিস স্থাপিত হবে। জেলা প্রশাসন আরো বলেন- ১৪ এপ্রিল থেকে সারাদেশে কঠোরভাবে লকডাউন চলবে। আপনারা সবাই স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলবেন এবং সরকারের লকডাউন বাস্তবায়নে প্রশাসনকে সহায়তা করবেন।

উল্লেখ্য, গত ১০ এপ্রিল শনিবার ভোররাতে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়ে চন্দ্রগঞ্জ পশ্চিম বাজারে ১২টি ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান পুড়ে যায়। এতে অন্ততপক্ষে এক কোটি টাকারও বেশি ক্ষতিসাধিত হয় ব্যবসায়ী ও দোকানঘর মালিকদের।

Tag :

লক্ষ্মীপুরের চন্দ্রগঞ্জে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে চেক ও ঢেউটিন বিতরণ

Update Time : ০৪:২২:০২ অপরাহ্ন, সোমবার, ১২ এপ্রিল ২০২১

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি :
লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার চন্দ্রগঞ্জে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে অনুদানের চেক ও ঢেউটিন বিতরণ করা হয়েছে। জেলা প্রশাসক আনোয়ার হোছাইন আকন্দ ক্ষতিগ্রস্ত ১২জন দোকানঘরের মালিক ও ১২জন ভাড়াটিয়া ব্যবসায়ীর মাঝে সোমবার বিকেলে (১২ এপ্রিল) এই অনুদান তুলে দেন।
এসময় উপস্থিত ছিলেন- সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মাসুম, জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক নুরুল ইসলাম পাটোয়ারী, সদর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোশারফ হোসেন, স্থানীয় চেয়ারম্যান মো. নুরুল আমিন, চন্দ্রগঞ্জ বাজার পরিচালনা কমিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আলী করিম ও সাধারণ সম্পাদক মাওলানা মো. আব্দুল কুদ্দুছ প্রমুখ।
সদর উপজেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের মাধ্যমে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে এসব অনুদান প্রদান করা হয়েছে। অনুদান প্রাপ্তদের মধ্যে ১২জন ঘরমালিককে ৬ হাজার টাকা করে মোট ৭২ হাজার টাকার চেক ও ২ বান্ডিল ঢেউটিন এবং ভাড়াটিয়া দোকান মালিকদের ১০ হাজার টাকা করে মোট ১ লাখ ২০ হাজার টাকার চেক প্রদান করা হয়।
এসময় জেলা প্রশাসক (ডিসি) আনোয়ার হোসেন আকন্দ বলেন- চন্দ্রগঞ্জে একটি ফায়ার সার্ভিস স্টেশন স্থাপনের জন্য সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে লিখিত প্রস্তাবনা পাঠিয়েছি। আশা করি অদূর ভবিষ্যতে এখানে একটি ফায়াস সার্ভিস স্থাপিত হবে। জেলা প্রশাসন আরো বলেন- ১৪ এপ্রিল থেকে সারাদেশে কঠোরভাবে লকডাউন চলবে। আপনারা সবাই স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলবেন এবং সরকারের লকডাউন বাস্তবায়নে প্রশাসনকে সহায়তা করবেন।

উল্লেখ্য, গত ১০ এপ্রিল শনিবার ভোররাতে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়ে চন্দ্রগঞ্জ পশ্চিম বাজারে ১২টি ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান পুড়ে যায়। এতে অন্ততপক্ষে এক কোটি টাকারও বেশি ক্ষতিসাধিত হয় ব্যবসায়ী ও দোকানঘর মালিকদের।