Dhaka ১২:২৯ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

প্রস্তাবিত বাজেটে কমছে যেসব পণ্যের দাম

মো: মোতাহার আলী: আগামী ২০২৪-২৫ অর্থবছরের জন্য প্রস্তাবিত বাজেটে বেশকিছু পণ্যে শুল্ক ও কর কমানোর প্রস্তাব করা হয়েছে। প্রস্তাবিত বাজেট বাস্তবায়িত হলে সেগুলোর দাম কমতে পারে।
৬ জুন বৃহস্পতিবার বিকেল ৩টায় জাতীয় সংসদে ২০২৪-২০২৫ অর্থবছরের বাজেট উত্থাপন করেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী। এবারের বাজেটের স্লোগান—সুখী, সমৃদ্ধ, উন্নত ও স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে অঙ্গীকার। বাজার স্থিতিশীল রাখা ও উচ্চ মূল্যস্ফীতি কমাতে প্রস্তাবিত বাজেটে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য ও খাদ্যশস্য সরবরাহের ওপর উৎসে কর কমানোর প্রস্তাব করা হয়েছে। এসব পণ্যে উৎসে কর ২ শতাংশ থেকে কমিয়ে ১ শতাংশ করার প্রস্তাব করা হয়েছে। পণ্যগুলো হলো—ধান, চাল, ডাল, আটা, ময়দা, লবণ, ভুট্টা, গম, আলু, পেঁয়াজ, রসুন, মটর, ছোলা, মসুর, ভোজ্যতেল, চিনি, আদা, হলুদ, শুকনা মরিচ, গোলমরিচ, এলাচ, দারুচিনি, লবঙ্গ, খেজুর, তেজপাতা, পাট, তুলা, সুতা এবং সব ধরনের ফল। উৎসে কর কমানোর কারণে নিত্যপ্রয়োজনীয় এসব পণ্যের দাম কমবে।

এছাড়া, শুল্ক ও করহার কমানোর কারণে প্যাকেটজাত গুঁড়া দুধ, বিদেশি চকলেট, ল্যাপটপ, নির্মাণসামগ্রী, সুইচ-সকেট, ইলেকট্রিক মোটর, মোটরসাইকেল, কিডনি ডায়ালাইসিসের ফিল্টার, কার্পেট, ডেঙ্গু কিট, ক্যান্সার চিকিৎসা খরচ, ওষুধ, চিকিৎসা সামগ্রী ও স্বাস্থ্য সুরক্ষাসামগ্রীর দাম কমতে পারে।

Tag :
সর্বাধিক পঠিত

https://dainiksurjodoy.com/wp-content/uploads/2023/12/Green-White-Modern-Pastel-Travel-Agency-Discount-Video5-2.gif

দাঁতমারা সেলফি রোড়ে গাছের সঙ্গে মোটরসাইকেলের ধাক্কায় নিহত ১

প্রস্তাবিত বাজেটে কমছে যেসব পণ্যের দাম

Update Time : ১১:০৪:০১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৬ জুন ২০২৪

মো: মোতাহার আলী: আগামী ২০২৪-২৫ অর্থবছরের জন্য প্রস্তাবিত বাজেটে বেশকিছু পণ্যে শুল্ক ও কর কমানোর প্রস্তাব করা হয়েছে। প্রস্তাবিত বাজেট বাস্তবায়িত হলে সেগুলোর দাম কমতে পারে।
৬ জুন বৃহস্পতিবার বিকেল ৩টায় জাতীয় সংসদে ২০২৪-২০২৫ অর্থবছরের বাজেট উত্থাপন করেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী। এবারের বাজেটের স্লোগান—সুখী, সমৃদ্ধ, উন্নত ও স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে অঙ্গীকার। বাজার স্থিতিশীল রাখা ও উচ্চ মূল্যস্ফীতি কমাতে প্রস্তাবিত বাজেটে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য ও খাদ্যশস্য সরবরাহের ওপর উৎসে কর কমানোর প্রস্তাব করা হয়েছে। এসব পণ্যে উৎসে কর ২ শতাংশ থেকে কমিয়ে ১ শতাংশ করার প্রস্তাব করা হয়েছে। পণ্যগুলো হলো—ধান, চাল, ডাল, আটা, ময়দা, লবণ, ভুট্টা, গম, আলু, পেঁয়াজ, রসুন, মটর, ছোলা, মসুর, ভোজ্যতেল, চিনি, আদা, হলুদ, শুকনা মরিচ, গোলমরিচ, এলাচ, দারুচিনি, লবঙ্গ, খেজুর, তেজপাতা, পাট, তুলা, সুতা এবং সব ধরনের ফল। উৎসে কর কমানোর কারণে নিত্যপ্রয়োজনীয় এসব পণ্যের দাম কমবে।

এছাড়া, শুল্ক ও করহার কমানোর কারণে প্যাকেটজাত গুঁড়া দুধ, বিদেশি চকলেট, ল্যাপটপ, নির্মাণসামগ্রী, সুইচ-সকেট, ইলেকট্রিক মোটর, মোটরসাইকেল, কিডনি ডায়ালাইসিসের ফিল্টার, কার্পেট, ডেঙ্গু কিট, ক্যান্সার চিকিৎসা খরচ, ওষুধ, চিকিৎসা সামগ্রী ও স্বাস্থ্য সুরক্ষাসামগ্রীর দাম কমতে পারে।